ঢাকা, মঙ্গলবার 11 March 2017, ২৮ চৈত্র ১৪২৩, ১৩ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সাঁথিয়ায় পাউবো অফিস বন্ধ ॥ ভোগান্তিতে কৃষক ॥ হুমকির মুখে সেচ প্রকল্প

কামরুল ইসলাম পাবনা : পাবনার কৃষি প্রধান সাঁথিয়া উপজেলার উপ-বিভাগীয় পাউবো অফিসের কর্মকর্তা/ কর্মচারীদের অনিয়ম, দুর্নীতি স্বেচ্ছাচারিতার কারণে প্রায় ১৩ বছর ধরে বন্ধ রয়েছে কার্যক্রম। অফিসের ভিতরে মাদকাসক্তদের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। ফলে হুমকির মুখে সেচ প্রকল্প ও ভোগান্তিতে পড়ছে কৃষক।
জানা যায়, উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার কৃষি প্রধান সাঁথিয়ার উন্নয়নের জন্য স্থাপিত পানি উন্নয়ন বোর্ড সাঁথিয়ার উপ বিভাগীয় অফিস। কর্মকর্তা/কর্মচারীদের অনিয়ম, দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতার কারণে বেড়া পাউবোর অধীনে এক সময়ের জাকজমকপূর্ণ উপ-বিভাগীয় এ কার্যালয়টি বন্ধ রয়েছে। কার্যালয়টি মাদকসেবিদের দখলে। প্রতিদিন এখানে ফেন্সিডিল, হিরোইন, ইয়াবা, গাজাসহ হরেক রকম মাদক সেবন হচ্ছে। অফিসের ভিতরের জানালা, দরজা ভেঙ্গে দুবৃর্ত্তরা টিউবওয়েল, বৈদ্যুতিক মিটার, আসবাবপত্রসহ মূল্যবান মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে।
সাঁথিয়া থানা প্রাচীরের সংলগ্ন পাউবো অফিসটিতে মাদকাসাক্ত ও অপরাধীদের অবাধ বিচরণ হলেও পুলিশ যেন অন্ধকারে। পথচারীরা অভিযোগ করে বলেন থানা পুলিশ দেখেও না দেখার ভান করছে। এলাকার সেচ সুবিধার্থে স্থাপিত উপ-বিভাগীয়া অফিসটি ২০০৪ সালে কাকতালীয় ভাবে কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। সেচ সুবিধা না পেয়ে কৃষকরা ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছেন। হুমকির মুখে পড়েছে সেচ প্রকল্প।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বেড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতায় প্রধান সেচ খালসহ পাউবো’র সাঁথিয়া উপজেলার সকল কার্যক্রম বেড়া অফিসে চলে গেছে। সরকারের কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সাঁথিয়া উপ-বিভাগ অফিসটিতে দায়িত্বরত মোট ৬ জন কর্মকর্তা/ কর্মচারী থাকলেও বর্তমানে শূণ্য। কোন কার্যক্রম না থাকায় এলাকার সুফলভোগী কৃষকেরা পাউবো’র সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ড বেড়া পাউবো সাঁথিয়া উপ বিভাগীয় অতিরিক্ত দায়িত্ব প্রাপ্ত এসডিও মেহেদী হাসান জানান, অত্র কার্যালয়ে অবকাঠামোগত মেরামত করে অতিসত্ত্বর অফিসের কার্যক্রম আবার শুরু হবে।
এ বিষয়ে সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ নাসির উদ্দিন বলেন, পাউবোর ওই অফিসে ইতিপুর্বে অভিযান চালানো হয়েছে। অফিসটি থানা পুলিশের নজরে আছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ