ঢাকা, মঙ্গলবার 11 March 2017, ২৮ চৈত্র ১৪২৩, ১৩ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাজশাহীতে মৃত রাওধার কাশ্মীরি বান্ধবীর নামে পিতার হত্যা মামলা

রাজশাহী অফিস : রাজশাহীর ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজের ছাত্রী মালদ্বীপের রাওধা আতিফের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় তার কাশ্মীরি বান্ধবী সিরাত পারভীন মাহমুদের নামে ‘হত্যা’র অভিযোগ এনে রাজশাহীর আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন তার বাবা ডা. মোহাম্মদ আতিফ।
গতকাল সোমবার বেলা দুপুর ১২টার দিকে রাওধা আতিফের বাবা ডা. মোহাম্মদ আতিফ রাজশাহী মেট্রোপলিটন আদালতের বিচারক সাইফুল ইসলামের আদালতে উপস্থিত হয়ে তিনি এই মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় তার সহপাঠী বান্ধবী সিরাত পারভীন মাহমুদকে আসামি করা হয়। সিরাত ভারতীয় কাশ্মীরের অধিবাসী বলে জানা গেছে। মামলা দায়ের শেষে রাওধা আতিফের বাবা ডা. মোহাম্মদ আতিফ সাংবাদিকদের বলেন, ‘এটা নিশ্চিত একটা হত্যাকাণ্ড। আমরা রাওধা আতিফের মৃত্যুর খবর পেয়ে বাংলাদেশের রাজশাহীতে ছুটি আসি। রাওধার গলায় হাতের ছাপ আছে। যা হত্যাকাণ্ড বলে আমার মনে হয়েছে। তাকে শ্বাসরোধ করেই হত্যা করা হয়েছে।’ গত ২৯ মার্চ এই রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। ময়নাতদন্ত শেষে গত এক এপ্রিল দুপুরে রাজশাহীর হাতেমখান গোরস্থানে মালদ্বীপের মেয়ে রাওদা আতিফের লাশ দাফন করা হয়। ইতোমধ্যে মালদ্বীপের দু’জন পুলিশ অফিসার ঘটনার অনুসন্ধান কাজ সেরে গেছেন।
আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ১০ জন আহত
আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বরে গত রোববার রাত পৌনে নয়টার দিকে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বানেশ্বর বাজারের নিয়ন্ত্রণ নেয়াকে কেন্দ্র করে গত কয়েকদিন ধরে স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ গ্রুপ এবং সাবেক সভাপতি আব্দুস সাত্তারের ছেলে সেলিম শেখের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। এরই জের ধরে রোববার রাত পৌনে নয়টার দিকে হঠাৎ করেই দুই গ্রুপের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া শুরু হয়। এ সময় উভয় পক্ষের লোকজন লাঠি-সোঠা লাঠিসোটা নিয়ে একে অপরের ওপর হামলা করে। এ সময় অন্তত ৬টি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটে। এসময় প্রায় আধা ঘণ্টা অবরোধ করে রাখা হয় ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক। সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আ’লীগ নেতা আটক
রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলায় এক কলেজের অধ্যক্ষকে ইয়াবাসহ আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে উপজেলার বাকশিমইল এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত মৌগাছি কলেজের অধ্যক্ষ শামসুজ্জোহা বেলাল খাড়ইল গ্রামের এবাদুর রহমানের ছেলে এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য বলে নিশ্চিত করেছেন স্থানীয়রা। মোহনপুর থানার পুলিশ জানায়, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার দুপুর আড়াইটার দিকে বাকশিমইল এলাকার হাবিবুর রহমান ওরফে ন্যাংড়া হাবিবের বাসায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় ১০৪ পিস ইয়াবাসহ মৌগাছি কলেজের অধ্যক্ষ সামসুজ্জোহা বেলালকে আটক করা হয়। তবে হাবিব বাসায় না থাকায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি। এ ঘটনায় অধ্যক্ষ ও বাড়ির মালিক হাবিবুর রহমান ওরফে ন্যাংড়া হাবিবের নামে মাদক মামলা দায়ের করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ