ঢাকা, মঙ্গলবার 11 March 2017, ২৮ চৈত্র ১৪২৩, ১৩ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

নবীগঞ্জে শিশু শ্রমিকের সংখ্যা বাড়ছে

শাহ সুলতান আহমেদ নবীগঞ্জ থেকে : যে বয়সে শিশুদের হাতে বই খাতা থাকার কথা। ঐ বয়সেই শিশুরা  জীবন যুদ্ধে। তারা  পরিবারের ভরণ-পোষণ চালাতে ইদানীং দেখা গেছে নবীগঞ্জের বিভিন্ন বাসা, বাড়ি, হোটেলে শ্রমিকের কাজ করছে। তারা  বেশির ভাগ আইসক্রীম ফ্যাক্টরী, হোটেল, বিভিন্ন বেকারীতে  শ্রমিকের কাজ করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বড়দের সাথে প্রতিযোগিতা করে  কাজ করছে। সব মিলিয়ে হবিগঞ্জ জেলার  নবীগঞ্জ উপজেলায় শিশু শ্রমিকের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এদের মধ্যে অনেকে আবার রিকশা চালাতে দেখা গেছে। এক দিকে যেমন-শিশু শ্রমিকের সংখ্যা বাড়ায় শিক্ষার আলো থেকে তারা অনেক দূরে চলে যাচ্ছে। অন্য দিকে তাদের ভবিষ্যৎ জীবন নিয়ে সচেতন মহল উদ্বিগ্ন রয়েছেন। দেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে তার সাথে  এগিয়ে চলেছে সমাজ । কিন্তু দেশের সোনালী স্বপ্ন যাদের নিয়ে তারা অকালে শিক্ষার আলো থেকে সরে যাচ্ছে । শিশু শ্রমিকদের মধ্যে অনেকেই  রয়েছেন যাদের বয়স আনুমানিক ৮/১০ এর মধ্যে। তাদেরকে বিভিন্ন অসাধু ব্যবসায়ী যেমন -হোটেল মালিক ,আইসক্রীম ফ্যাক্টরির মালিক, বিত্তবান বাসা বাড়ির মালিক। তারা নামে মাত্র মুজুরি দিয়ে তাদের বশ করে রেখেছে। আবার অনেক শিশু শ্রমিককে জীর্ণ পরিবেশে  মুজুরি হিসেবে তিন বেলা খাবার দিয়ে দায়ভার সারাচ্ছে। এক শিশু শ্রমিক আব্দুল্লাহ (১০) সে জানায় তাহার লেখাপড়ার সাধ ছিলো।  কিন্তু পিতা-মাতার অভাবই তার কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। এখন সে প্রতিমাসে ৬ শত টাকা উপার্জন করে তার পিতা-মাতাকে দিচ্ছে। সে আরো জানায় -এখনো যদি ভাল সুযোগ সুবিধা পেতো শিক্ষা অর্জন করতে সে দ্বিধা বোধ করতো না । নবীগঞ্জের প্রত্যন্ত অঞ্চলের বিভিন্ন হাট -বাজার ও গ্রামে ঘুরে দেখা গেছে শিশু শ্রমিকদের ব্যাপক আনা-গোনা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ