ঢাকা, মঙ্গলবার 11 March 2017, ২৮ চৈত্র ১৪২৩, ১৩ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মান্দায় দ্বিতীয় স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীকে হত্যার অভিযোগ ঘটনাটি ধামাচাপার অপচেষ্টা

মান্দা (নওগাঁ) সংবাদদাতা: নওগাঁর মান্দায় দ্বিতীয় স্ত্রীর সাবিনা খাতুনের (৩০) বিরুদ্ধে স্বামী মনিরুজ্জামান মন্টু জোয়ার্দ্দার (৪২) কে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার কুশুম্বা ইউনিয়নের কুশুম্বা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। হত্যাকা-ের শিকার মনিরুজ্জামান মন্টু জোয়ার্দ্দার ছোটবেলালদহ গ্রামের মৃত আয়েজ উদ্দিন জোয়ার্দ্দারের ছেলে। হত্যার পরে স্ত্রীর বিরুদ্ধে মুখে গ্যাসবড়ি দিয়ে আত্মহত্যা বলে শ্বশুর বাড়ির লোকজন কর্তৃক প্রচার করে ঘটনাটি ধামাচাপা দেবার জন্য অপচেষ্টা করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর থেকে মন্টুর দ্বিতীয় স্ত্রী সাবিনা খাতুন গা ঢাকা দিয়েছে। খবর পেয়ে মান্দা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার হাফিজুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মন্টু প্রায় ৬ বছর আগে উপজেলার কুশুম্বা গ্রামের পবন শীলালের মেয়ে সাবিনা খাতুনকে প্রেমের সম্পর্ক করে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। স্ত্রীকে শ্বশুর বাড়িতে রেখে সংসার করে আসছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার রাতে দ্বিতীয় স্ত্রী সাবিনা মোবাইলফোনে নিজের কাছে ডেকে নেয়। এ অবস্থায় শুক্রবার বিকেল ৩ টা ১০ মিনিটে মন্টুকে শ্বশুর বাড়ির লোকজন মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
নিহতের ভাবি পপি বিবির অভিযোগ, দ্বিতীয় স্ত্রীসহ তার পরিবারের সদস্যরা মন্টুর মৃত্যুর বিষয়টি অত্যন্ত গোপন করে রেখেছিল। হাসপাতালে নিয়ে আসার পর তার মৃত্যুর খবরটি ছড়িয়ে পড়ে। তিনি দাবি করেন, দ্বিতীয় স্ত্রী সাবিনা কৌশলে তার দেবর মন্টুকে শ্বাসরোধে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে প্রচার চালিয়ে ঘটনাটি ধামাচাপার চেষ্টা করছে।  
মান্দা থানার পরিদর্শক (ওসি) আনিছুর রহমান জানান, মৃত্যুর সঠিক কারণ নিশ্চিত হওয়ার জন্য মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়না তদন্তের পর ঘটনাটি জানা যাবে বলেও তিনি দাবি করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ