ঢাকা, বুধবার 12 April 2017, ২৯ চৈত্র ১৪২৩, ১৪ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ১০০০ দিনের ইতিহাস শুধুই সফলতার ইতিহাস

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স অতিক্রম করেছে সাফল্যগাঁথা ১০০০তম দিন। ১৭ জুলাই ২০১৪ সালে যাত্রা শুরু করে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বাংলাদেশের বিমান পরিবহন শিল্পে যাত্রা শুরু করে একের পর এক অনন্য নজির স্থাপন করছে, অর্জন করেছে সাফল্যের মাইলফলক।

বাংলাদেশ তথা সারাবিশ্বের প্রতিযোগিতামূলক এভিয়েশন ব্যবসায় ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স যাত্রা শুরু করেছিল আজ থেকে ঠিক ১০০০তম দিন পূর্বে ৭৬ আসন বিশিষ্ট দু’টি কানাডার বোম্বারডিয়ার তৈরী ড্যাশ ৮-কিউ ৪০০ সিরিজের এয়ারক্রাফট দিয়ে ঢাকা-যশোর ফ্লাইট পরিচালনার মাধ্যমে। এর পর খুব অল্প সময়ের মধ্যেই আরো একটি ৭৮ আসনের ড্যাশ ৮-কিউ ৪০০ এয়ারক্রাফট বিমান বহরে যোগ করে ইউএস-বাংলা। শুরু থেকেই নিজস্ব ক্যাটারিং, নিজস্ব টেইলারিংসহ ইন-হাউজ ট্রেনিং সুবিধা, আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন ইন-ফ্লাইট সার্ভিস, যা যাত্রী সাধারণের কাছে গ্রহণযোগ্য করে তুলেছে। 

এক বছরের মধ্যে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে সকল চালু বিমানবন্দরে  ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ফ্লাইট পরিচালনা করে সারা দেশের জনগণকে স্বল্পতম সময়ে আকাশপথের মাধ্যমে যোগাযোগ ব্যবস্থাকে করেছে সুদৃঢ়। বর্তমানে অভ্যন্তরীণ রুটে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সিলেট, যশোর, সৈয়দপুর, বরিশাল, রাজশাহী রুটে প্রতিদিন ফ্লাইট পরিচালনা করছে। অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট পরিচালনার সাফল্যে কথা বিবেচনা করে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সকে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেয়। যার ফলশ্রুতিতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স যাত্রা শুরুর দু’বছরের মধ্যে ১৫ মে ২০১৬ তারিখে ঢাকা-কাঠমান্ডু রুটে ফ্লাইট পরিচালনার মধ্যেমে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে কাঠমান্ডু ছাড়াও কলকাতা, মাস্কাট, কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর রুটে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করে আসছে। আগামী ১৩ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে চট্টগ্রাম থেকে কলকাতা এবং ৩রা মে তারিখে ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে ব্যাংকক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করতে যাচ্ছে।

পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বহরে ১৬৪ আসনের তিনটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট যুক্ত করেছে। যাতে রয়েছে আরামদায়ক ৮টি বিজনেস ক্লাস ও ১৫৬টি ইকোনমি ক্লাসের আসন ব্যবস্থা। রয়েছে নিজস্ব ইন-ফ্লাইট ম্যাগাজিন “ব্লু স্কাই”। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের সকল এয়ারক্রাফট সম্পূর্ণরূপে ধূমপাণমুক্ত। বর্তমানে সপ্তাহে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে ২০০টির অধিক ফ্লাইট পরিচালিত হয়। গত ১০০০ দিনে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স প্রায় চব্বিশ হাজার ফ্লাইট পরিচালনা করে বাংলাদেশে বিমান পরিবহনে এক অনন্য নজির স্থাপন করেছে। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ