ঢাকা, বুধবার 12 April 2017, ২৯ চৈত্র ১৪২৩, ১৪ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

খুলনায় কৃষক হত্যা মামলায় সাত  ভাইসহ ৮ জনের যাবজ্জীবন

খুলনা অফিস ঃ যশোর জেলার কেশবপুর উপজেলার মধ্যকুল মাঝের পাড়া গ্রামের কৃষক মজিদ সরদার হত্যা মামলায় আপন সাত ভাই ও এক ভাইপোকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। একই সাথে প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ২বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার বিকেলে খুলনা খুলনা বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এম এ রব হাওলাদার এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্তরা আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন-কেশবপুর উপজেলার মধ্যকুল মাঝের পাড়া গ্রামের মৃত জাহান বকস সরদারের সাত ছেলে যথাক্রমে তাজ উদ্দিন সরদার (৩২), রফিকুল ইসলাম সরদার (৩৫), সিদ্দিকুর রহমান সরদার (৩৮), আমজাদ সরদার (২৬), আব্দুল গনি সরদার (৪৫), নজরুল ইসলাম সরদার (৩০) ও মাসুদ সরদার (২২) এবং ভাইপো সিদ্দিকুর রহমান সরদারের ছেলে আসাদুজ্জামান লিটন (২০)।

মামলার এজাহারের উদ্ধৃতি দিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের বিশেষ পিপি এনামুল হক জানান, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ২০০৯ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টার দিকে মধ্যকুল মাঝের পাড়া গ্রামের বাড়িতে মজিদ সরদারের ভাই মশিউর রহমান পলাশ ও তার স্ত্রী শাহিদা বেগমকে লাঠিসোঁটা দিয়ে মারধর করতে থাকেন আসামীরা। এসময় মজিদ সরদার  বাধা দিলে তারা তাকেও বেধড়ক মারপিট করে গুরুতর করে। তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই দিনই বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মজিদ সরদার মারা যান। এ ঘটনায় মজিদ সরদারের ছেলে মো. বাবুল রানা বাদি হয়ে ১১জনের বিরুদ্ধে কেশবপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক নারায়ণ চন্দ্র ঘোষ ৮জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর মামলাটি যশোরের আদালত থেকে বিচারের জন্য খুলনা বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে প্রেরণ করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ