ঢাকা, বুধবার 12 April 2017, ২৯ চৈত্র ১৪২৩, ১৪ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ট্রাম্পের অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের জন্য পুলিৎজার জিতেছে ওয়াশিংটন পোস্ট

১১ এপ্রিল, পলিটিকো : অনুসন্ধানী ও সাহসী সাংবাদিকতার জন্য প্রতিবছর পুলিৎজার পুরস্কার দেওয়া হয়। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আর্থিক অনুদান ও ১২ বছর আগে দেওয়া তার নারী বিদ্বেষী বক্তব্যের জন্য এ বছর পুলিৎজার জিতেছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম পলিটিকো।
দ্য নিউ ইয়র্ক ডেইলি নিউজ এবং প্রো-পাবলিকা জনসেবামূলক সাংবাদিকতার জন্য পুলিৎজার জিতেছে। এ দুটি পত্রিকাই অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার জন্য পরিচিত। গরীব সংখ্যালঘুদের ওপর নিউইয়র্ক পুলিশের নিপীড়ন নিয়ে প্রতিবেদন করেছে তারা। 
ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক ডেভিড ফারহেন্টহোল্ড ট্রাম্পের আর্থিক অনুদান নিয়ে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করেন। পরে ২০০৫ সালে ধারণকৃত ট্রাম্পের নারী বিদ্বেষী বক্তব্য প্রকাশিত হয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ঠিক আগমুহূর্তে। জাতীয় পরিসরে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেদনের জন্য তাকে এ পুরস্কার দেওয়া হয়।
অপরদিকে, আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সম্পর্কিত অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের জন্য পুলিৎজার জিতেছে দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের পেগি নুনানকে মন্তব্য প্রতিবেদনের জন্য এ পুরস্কার দেওয়া হয়।
গত সোমবার পুরস্কার ঘোষণার সময় বলা হয়, গণমাধ্যমের জন্য প্রতিকূল এই পরিবেশের মধ্যে পত্রিকা দুটি দুই ক্ষমতবান ব্যক্তির বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশে যে দুঃসাহকিতা দেখিয়েছে তাতে এই পুরস্কার তাদেরই প্রাপ্য।
অন্য বিজয়ীদের মধ্যে আছে তিন শতাধিক সাংবাদিকের একটি আন্তর্জাতিক কনসোর্টিয়াম আইসিজে, যারা সম্প্রতি ‘পানামা পেপারস’ ফাঁস করে বিশ্বব্যাপী হৈ চৈ ফেলে দিয়েছে। তাদের অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে জানা যায়, বিভিন্ন দেশের ক্ষমতাশালী ও বিত্তবানদের কর ফাঁকি দেয়ার একটি গোপন ব্যবস্থা কীভাবে সবার নাকের ডগার ওপর কার্যকর আছে।
যুক্তরাষ্ট্রে সাংবাদিকতায় সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার হচ্ছে পুলিৎজার। ১৯১৭ সাল থেকে নিয়মিত এই পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে। একাধিকবার এ পুরস্কার জিতেছে নিউইয়র্ক টাইমস, ওয়াশিংটন পোস্ট এবং ওয়ালস্ট্রিট জার্নালের মতো বিখ্যাত পত্রিকাগুলো।
পুলিৎজার পুরস্কার বিজয়ী নির্বাচনের জন্য গঠিত বোর্ডের ১৯ জন সদস্যকে পূর্বে পুরস্কার জিতেছেন এবং প্রখ্যাত সাংবাদিক ও গবেষকদের মধ্যে থেকে নেওয়া হয়। ১০২ জন জুরির সহায়তায় চূড়ান্ত বিজয়ীদের নির্বাচন করা হয়।
এ বছর ২১টি ক্যাটাগরিতে পুরস্কারের জন্য নাম এসেছিল আড়াই হাজারেরও বেশি। এর মধ্যে সাতটি পুরস্কার দেয়া হয় ফিকশন, নাটক, ইতিহাস, জীবনী, কবিতা, ননফিকশন এবং সংগীতের জন্য।
এবারের ফিকশন অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন ‘দ্য আন্ডারগ্রাউন্ড রেইলরোড’ উপন্যাসের লেখক কলসোন হোয়াইটহেড। ওয়াশিংটন পোস্ট এখন পর্যন্ত ৪৮ বার পুলিৎজার পুরস্কার জয় করেছে। ২০০৮ সালে এ সংবাদমাধ্যম আটটি একক পুলিৎজার পুরস্কার লাভ করে, যা কোনও পত্রিকার এক বছরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যক পুলিৎজার জয়ের উদাহরণ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ