ঢাকা, বুধবার 12 April 2017, ২৯ চৈত্র ১৪২৩, ১৪ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সিরিয়া ইস্যুতে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার মুখে রাশিয়া

এপ্রিল ১১, বিবিসি ও স্কাই নিউজ : সিরিয়ায় চলমান সংকটের জেরে নতুন করে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়ছে রাশিয়া। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদকে নিজ দেশের বেসামরিক মানুষের ওপর রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগে সমর্থন দেয়ার কারণে রুশ ও সিরিয়ান সামরিক কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে। এমনটাই জানিয়েছেন ব্রিটেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন।
মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনের সঙ্গে আলাপের পরে তিনি বলেন, ‘মস্কোর নিজের নীতিগত অবস্থান পরিস্কার করার সময় এসেছে। ক্রেমলিন আসাদ সরকারকে রাসায়নিক হামলায় সমর্থন দেবে নাকি কঠোর অবস্থানে যাবে, দ্রুতই তা নির্ধারন করতে হবে। নতুবা সিরিয়ার পাশাপাশি রুশ সেনা কর্মকর্তারাও আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বেন।’
তিনি জানান, সিরিয়ার সরকারি বাহিনীর সামরিক কর্মকা-ের সঙ্গে যুক্ত শীর্ষ পর্যায়ের রুশ সেনা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে। আর এটাই হবে সিরিয়া সংকটকে কেন্দ্র করে রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরোপিত প্রথম নিষেধাজ্ঞা।
এদিকে জি-৭ ভুক্ত দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা ইতালিতে বৈঠক করেছেন। সেখানে সিরিয়া সংকট নিরসনে রাজনৈতিক উদ্যোগের বিষয়ে একমত হয়েছেন সাত দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা। যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে সিরিয়ার জন্য নতুন ভাগ্য নির্ধারনে এ সাতটি দেশ একসঙ্গে কাজ করবে বলে বরিস জনসন জানিয়েছেন।
ক্রেমলিন মিত্র বাশার আল আসাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। মার্কিন হামলাকে ‘আগ্রাসন’ বলে চিহ্নিত করেছে। অন্যদিকে বর্তমান প্রেক্ষাপটে আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করা মূল টার্গেট বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রয়োজনে ফের সামরিক হামলার হুঁশিয়ারি দিয়েছে।
এ জন্য পরববর্তী উদ্যোগ ঠিক করতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিসা মে ও জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন। দু’নেতাই মার্কিন প্রশাসনকে এ বিষয়ে সব রকমের সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ