ঢাকা, বুধবার 12 April 2017, ২৯ চৈত্র ১৪২৩, ১৪ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বাওজাকে বরখাস্ত করলো আর্জেন্টিনা

জাতীয় দলের কোচের পদ থকে এডগার্ডো বাওজাকে বরখাস্ত করেছে আর্জেন্টাইন ফুটবল এসোসিয়েশন (এএফএ)। আগামী বছর রাশিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপে খেলার জন্য বাছাইপর্বে বাঁধা পেরুতে কঠিন সমস্যায় পড়েছে আর্জেন্টিনা। তারই জেড় ধরে জাতীয় দলের কোচের পদ থেকে বাওজাকে সড়িয়ে দেয়া হলো। তিন বছরের মেয়াদ শেষে গত মাসে আর্জেন্টাইন ফুটবল এসোসিয়েশনে নতুন কমিটি দায়িত্ব গ্রহণ করেছে। এরপর তাদের নেতৃত্বে এটাই সবচেয়ে বড় সিদ্ধান্ত। এসোসিয়েশনের সদর দপ্তরে বাওজার সাথে আলোচনার পরে এএফএ’র নতুন সভাপতি ক্লডিও টাপিয়া সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আমরা তার সাথে মৌখিকভাবে সমঝোতায় এসেছি।
 এডগার্ডো বাওজাকে আমরা জাতীয় দলের কোচের পদ থেকে বরখাস্তের বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছি।’ তবে এখন পর্যন্ত বাওজার স্থানে কে আসছেন সে সম্পর্কে সভাপতি নিশ্চিত করে কিছু বলেননি। তবে জানা গেছে দ্রুতই সংবাদ সম্মেলনে এ সংক্রান্ত বিস্তারিত জানানো হবে। ১৯৭০ সালের পরে এই প্রথমবারের মত বিশ্ব র্যাঙ্কিংয়ের দুই নম্বরে থাকা দলটি বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে না খেলার শঙ্কায় রয়েছে। নিষেধাজ্ঞার কারনে দলের তারকা স্ট্রাইকার লিয়নেল মেসি বাছাইপর্বে বাকি তিন ম্যাচে খেলতে পারছেন না। গত মাসে বলিভিয়ার কাছে পরাজিত হয়ে বাছাইপর্বের টেবিলের পঞ্চম স্থানে চলে গেছে আর্জেন্টিনা। এর ফলে শীর্ষ চারে থেকে সরাসরি চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতাও এখন ফিকে হয়ে গেছে।
 চিলির বিপক্ষে বাছাইপর্বের ম্যাচে সহকারী রেফারীর সাথে অশোভন আচরনের দায়ে মেসিকে চার ম্যাচ নিষিদ্ধ করেছে ফিফা। যদিও বলিভিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের পরে বাওজা বলেছিলেন এটা এমন একটি দল যাদের লড়াই করে ফিরে আসার সামর্থ্য আছে। কিন্তু বার্সেলোনার সুপারস্টার মেসিকে ছাড়া ২০১৮ বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে আর্জেন্টিনা আটটি ম্যাচের মধ্যে মাত্র একটিতে জয়ী হয়েছে। মেসিকে নিয়ে ছয়টি ম্যাচের মধ্যে পাঁচটিতেই জয়ী হয়েছে। গত সপ্তাহে টাপিয়া বলেছিলেন, জাতীয় দল বর্তমানে বাজে খেলছে এবং এটা সবাই জানে। এদিকে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ী নায়ক দিয়েগো ম্যারাডোনা বলেছেন ফিফা কাছে মেসির নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে আপীল করার জন্য তিনি প্রস্তুত আছেন। কিন্তু এ ব্যপারে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্তা সংস্থার সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের সম্ভাবনা বেশ ক্ষীণ। গত মাসে কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আয়োজনের ফাইনালে চিলির কাছে পেনাল্টিতে পরাজিত হবার পরে মেসি জাতীয় দল থেকে অবসরের ঘোষনা দিয়েছিলেন।
ঐ সময় তৎকালীন কোচ জেরার্ডো মার্টিনো দায়িত্ব থেকে সড়ে দাঁড়ালে বাওজা দলের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ব্রাজিলিয়ান ক্লাব সাও পাওলো ছেড়ে বাওজা জাতীয় দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন।
ঐ সময় টটেনহ্যাম হটস্পারের কোচ মরিসিও পোচেত্তিনো ও এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের কোচ দিয়েগো সিমিয়োনের নামও শোনা গিয়েছিল। ১৯৭৪ সালের পরে আর্জেন্টিনার কোচ হিসেবে সবচেয়ে কম সময় দায়িত্ব পালন করলেন বাওজা। তার অধীনে আট মাসে আর্জেন্টিনা তিনটিতে জয়ী ও তিনটি ম্যাচে পরাজিত হয়েছে, ড্র করেছে দুটিতে। ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ