ঢাকা, বুধবার 12 April 2017, ২৯ চৈত্র ১৪২৩, ১৪ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মানিকগঞ্জে আগ্নেয়াস্ত্র ককটেলসহ ডাকাত গ্রেফতার পুলিশ সদস্য আহত

মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা : সোমবার দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার কৈতরা গ্রাম থেকে ডাকাতি মামলার ৪ আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ সময় ডাকাতদের ছোঁড়া ককটেল বিস্ফোরণে রাশেদুল ইসলাম নামের এক পুলিশ সদস্য আহত হয়। অপরদিকে পুলিশের ছোড়া শর্টগানের গুলীতে আহত হয় ডাকাত সদস্য জিলকত। পরে তার দেয়া তথ্য মতে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ থেকে আটক করা হয় আলমগীর ও সোহলে নামের ডাকাতি মামলা দুই আসামীকে। গ্রেফতারকৃত ডাকাতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি এলজি, ১২ রাউন্ড কার্তূজ, ধারালো অস্ত্রসহ ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম। আহত ডাকাত সদস্য জিলকতকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পঙ্গু হাসপাাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও গত দুদিনে অভিযান চালিয়ে ব্যাপক পরিমাণ মাদক দ্রব্যসহ ২৩ জনকে আটক করেছে মানিকগঞ্জে পুলিশ।
মৎস্য চাষ প্রশিক্ষণ
মানিকগঞ্জের শিবালয়ে সামাজিক সংগঠন হাসি‘র উদ্যোগে শুরু হয়েছে মাসব্যাপী মৎস চাষ প্রশিক্ষণ। গতকাল সোমবার শিমুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে জেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের সার্বিক সহযোগিতায় এই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার। জেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা সামছুন নাহার, মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বিশ্বাস, সহ-সম্পাদক শহীদুল ইসলাম সুজন, বাংলাদেশ হেলথ্ এসিস্টেন্ট এসোসিয়েশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল ওয়ারেশ পাশা পলাশ, হাসি‘র নির্বাহী পরিচালক আশরাফুল আলম লিটন, আঞ্চলিক পরিচালক শাহীদুজ্জামান শাহীন, শিমুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
৩০ জন প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন জেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের প্রশিক্ষক (মৎস্য) মো. সোলায়মান সরকার।
শিক্ষক-কর্মচারীদের কর্মবিরতি
ছয় দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে সারাদেশের মতো মানিকগঞ্জেও পালিত হচ্ছে মাধ্যমিক শিক্ষক-কর্মচারীদের এক দিনের কর্মবিরতি। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় নিজ নিজ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে কালোব্যাজ ধারণ করে তারা ওই কর্মবিরতি পালন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন।
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি মানিকগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি কাশিনাথ সরকার জানান, সারাদেশের মতো মানিকগঞ্জের সকল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক ও কর্মচারীরা নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কালোব্যাজ ধারণ করে কর্মবিরতি পালন করছে।
ছয় দফা দাবিগুলো হলো- শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণ করতে হবে, বিক্ষিপ্তভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ নয়। জাতীয় শিক্ষানীতি -২০১০ বাস্তবায়ন করতে হবে। সরকারি শিক্ষক-কর্মচারিদের ন্যায় এমপিও ভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের ৫% বার্ষিক বেতন বৃদ্ধি, বাংলা নববর্ষ ভাতা, বাড়ি ভাড়া, পূর্ণাঙ্গ উতসব ও চিকিৎসা ভাতা দিতে হবে। জাতিসংঘের ইউনেস্কো ও আইএলও এর সুপারিশের আলোকে শিক্ষাখাতে জিডিপির ৬% বাবদ রাখতে হবে। নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও শিক্ষক-কর্মচারীদের এমপিও ভুক্ত করতে হবে। অবসর গ্রহণের ৬ মাসের মধ্যে অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্টের টাকা প্রদান করতে হবে। তাদের এই দাবি আদায় না হলে পরবর্তিতে আরো কর্মসূচি দেওয়া হবে বলেও হুশিয়ারি দেন শিক্ষক-কর্মচারী নেতারা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ