ঢাকা, বুধবার 12 April 2017, ২৯ চৈত্র ১৪২৩, ১৪ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

তালতলীতে আ’লীগ বিএনপি’র সংঘর্ষে আহত-১৮

আমতলী (বরগুনা) সংবাদদাতা : বরগুনার তালতলী উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে চলছে নির্বাচনের তোড়জোড়। প্রার্থীরা তাদের নির্বাচনী প্রচারণায় বিধি লঙ্ঘন করছে অনেকেই। আওয়ামীলীগ ও বিএনপি’র মধ্যে মুখোমুখী সংঘর্ষে আহত হয়েছেন ৭জন। গুরুতর আহত অবস্থায় দ’ুপক্ষের ৬জনকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ও আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
উপজেলার কড়ইবাড়িয়া ইউনিয়নের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মাওলানা মানসুরুল আলম জানান, শানুর বাজারে তার নির্বাচনী পথসভা শেষে কড়ইবাড়িয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হলে নৌকা মার্কার প্রার্থী জসিম মোল্লার নির্দেশে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা তার সাথে থাকা কর্মীদের উপর লাঠি, দা ও রামদা দিয়ে এলোপাতারি পিটিয়ে ও কুপিয়ে মারাত্মক যখম করে। এতে ৭জন আহত হয়েছেন।
এদিকে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী জসিম উদ্দিন মোল্লা জানান, তিনি উত্তর বেহালায় তার পথসভা শেষে বাড়ী ফেরার পথে শানুর বাজারে ব্রীজ পেরিয়ে ওঠার পর পরই তাদের উপর বিএনপির নেতা কর্মীরা লাঠি সোটা নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। এতে ১১জন আহত হয়েছেন।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন পক্ষেরই মামলা হয়নি। অন্যদিকে বড়বগী ইউনিয়নের পাজরাভাঙ্গা গ্রামের সাবেক ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি শান্তি রঞ্জন তালুকদারের বাড়ীতে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আলমগীর মিঞা আলম মুন্সির উঠান বেঠক চলাকালে তার একান্ত কর্মী মোঃ আলআমিন চৌকিদারের মটরসাইকেলটি পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। আওয়ামীলীগ প্রার্থীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে আওয়ামীলীগের নমিনেশন না পেয়ে আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল কাশেম হাওলাদারের কর্মীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। ওসি কমলেস চন্দ্র হালদার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে কোন পক্ষ থেকে মামলা হয়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ