ঢাকা, বৃহস্পতিবার 13 April 2017, ৩০ চৈত্র ১৪২৩, ১৫ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

খালিয়াজুরী উপজেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবিতে নেত্রকোনায় সচেতন ছাত্র সমাজের মানববন্ধন

নেত্রকোনা  সংবাদদাতা : “নদী বাঁচলেই হাওর বাঁচবে, হাওর বাঁচলেই কৃষক বাঁচবে, কৃষক বাঁচলেই দেশ বাঁচবে” এই স্লোগানকে সামনে রেখে সময় মত সঠিকভাবে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ সংস্কার না করায় অতি বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে বাঁধ ভেঙ্গে আগাম বন্যায় হাওরাঞ্চলের কৃষকদের সারা বছরের একমাত্র বোরো ফসল ঢলের পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় ক্ষতিগ্রহ খালিয়াজুরী উপজেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবিতে নেত্রকোনায় মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে খালিয়াজুরীর সচেতন ছাত্র সমাজ ও সর্বস্তরের জনগণ।
গতকাল বুধবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত শহরের  জেলা পরিষদ মার্কেটের সামনের সড়কে এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়। মানববন্ধন চলাকালে ধনু নদীর উৎস হতে মেঘনার মোহনা পর্যন্ত স্থায়ী বেড়ি বাধঁ নির্মাণ, ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকের ক্ষতিপূরণ, বিনা সূদে কৃষি ঋণ বিতরণ সহ সাত দফা বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, খালিয়াজুরী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শামছুজ্জামান তালুকদার শোয়েব সিদ্দিকী, চাকুয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান দেওয়ান রহমত আলী, এডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম, সাংবাদিক ম. কিবরিয়া চৌধুরী হেলিম, প্রকৃতি বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি তানভীর জাহান চৌধুরী, আব্দুল মোনায়েম মাস্টার, সাবেক ব্যাংকার মোঃ মতিয়র রহমান, সাংবাদিক সঞ্জয় সরকার, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল আওয়াল শাওন, খালিয়াজুরী উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক স্বাগত সরকার শুভ, শিক্ষার্থী আবুল কালাম আজাদ, আজহারুল ইসলাম নান্টু, মাজহারুল ইসলাম পলিন, মাইনুল হাসান মোহন, শ্যামল কান্তি দত্ত প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তারা সময় মত  বেড়ি বাঁধ নির্মাণ না করা, পানি উন্নয়ন বোর্ডের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা এবং বাঁধ নির্মাণে গাফেলতিকারী ঠিকাদারদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি, আগামী মৌশুমে কৃষকদের বিনা মূল্যে উন্নত মানের বীজ বিতরণ, ইউরিয়া সারের উপর ভর্তুকি প্রদান, কৃষকদের মাঝে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচী অব্যাহত রাখার জোর দাবি জানান। পরে মানববন্ধনকারীরা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ