ঢাকা, শুক্রবার 14 April 2017, ১ বৈশাখ ১৪২৩, ১৬ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আইসিসির লভ্যাংশ বণ্টনে ভারতের পাসে থাকবে বাংলাদেশ -পাপন

স্পোর্টস রিপোর্টার : আইসিসির বার্ষিক লভ্যাংশ কোন দেশ কতটা পাবে, তা নিয়ে আলোচনা এবং চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এ মাসের শেষের দিকে। যেখানে ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের বেশি মুনাফা পাওয়ার সুযোগ তৈরি করা হচ্ছে। এই তিন দেশের মধ্যে আবার ভারত পাবে সবচেয়ে বেশি লভ্যাংশ। এটা অসম বন্টন ব্যবস্থা হলেও এই আলোচনায় ভারতীয় বোর্ডকে সমর্থন দেবার ঘোষণা দিয়েছেন বিসিবি সভাতি নাজমুল হাসান পাপন। বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে বিসিসিআইয়ের পরিচালনা কমিটির প্রধান বিনোদ রাইয়ের সঙ্গে আলোচনা করতে এখন ভারতে নাজমুল হাসান পাপন। বিনোদ রাইয়ের সঙ্গে দেখা করে নাজমুল বলেন, ‘লভ্যাংশ ভাগের বিষয়টি সমাধান করতে প্রত্যেকেই মধ্যপন্থা খুঁজছে। আমরা আসলে কোনো সদস্য দেশকেই হতাশ করতে চাই না। বিশেষ করে ভারতকে তো নয়ই। ক্রিকেটে সব সময়ই তারা আমাদের সাহায্য করে এসেছে। ভারতীয় বোর্ড দুর্বল হয়ে গেলে আমরাও দুর্বল হয়ে যাব।’ বিষয়টা নিয়ে ভারতীয় বোর্র্ডের সঙ্গে আলোচনা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড পিভার, দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্র্ডের প্রধান নির্বাহী হারন লরগাত, জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্র্ডের মুকুহলানি, শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড প্রধান থিলাঙ্গা সুমাথি পালা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্র্ডের ডেভ ক্যামেরন। এন শ্রীনিবাসনের সময়ে আইসিসিতে তিন মোড়লের কাঠামো প্রতিষ্ঠিত হয়। এই কাঠামোতে সবচেয়ে বেশি মুনাফা পেত ভারত। অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ডকে দেওয়া হতো উল্লেখযোগ্য একটা অংশ। তবে শশাঙ্ক মোনাহর সভাপতি হবার পর তিন মোড়লের অন্যায্য কাঠানোতে ভেঙ্গে দিয়ে লভ্যাংশের সুষম বন্টনের ব্যবস্থা করেন। যার কারণে ভারতীয় বোর্র্ডের তোপের মুখে পড়তে হয় তাকে। পদত্যাগে বাধ্য হন। তবে ভারতীয় বোর্ডের সঙ্গে আপোষ করে আবার ফিরে যান আইসিসিতে। ভারতের ৩০ শতাংশ লভ্যাশের দাবিকে মেনে নিয়েছেন তিনি। ভারতকে ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ রেখেই নতুন প্রস্তাব পাস হতে পারে আইসিসিতে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ