ঢাকা, রোববার 16 April 2017, ৩ বৈশাখ ১৪২৩, ১৮ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাজধানীর ভাসানটেকে দুবৃত্তদের গুলীতে ঠিকাদার নিহত

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর ভাসানটেক শ্যামল পল্লী এলাকায় দুর্বৃত্তদের গুলীতে মো. মুছা ওরফে চিকনা জামাল (৪০) নামের এক মাটির ঠিকাদার চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালে মারা গেছেন। গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় তার মৃত্যু হয়। ভাষাটেক থানার ওসি মুন্সী সাব্বির আহমেদ জানান, মুছা এলাকায় চিকনা জামাল নামে পরিচিত। মাটির ঠিকাদারি করে কিনা আমার জানা নেই। সেও একজন সন্ত্রাসী। ভাষানটেক থানায় তার নামে চাঁদাবাজি মামলাসহ ১০/১২টি মামলা রয়েছে। কিভাবে সে গুলীবিদ্ধ হয়েছে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এখনো কাউকে আটক করা হয়নি বলে জানান তিনি। 

গত মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। আহত মুছা ভাষানটেক শ্যামল পল্লী শিল্পীরটেক এলাকার আ. খালেকের ছেলে। 

মুছার স্ত্রী রুনা আক্তার জানায়, সে দীর্ঘদিন আগে ঐ এলাকার সন্ত্রাসী রনি, ভুষি বাবু, ইস্টার্ন সোহেল, কাশেমসহ আরও অনেকের সাথে চলাফেরা করত এবং সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত ছিল। এখন আর মুছা তাদের সাথে চলাফেরা করে না। মাটি ভরাটের ঠিকাদারি করে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, ৮/১০ দিন আগে মুছার কাছে ৫০ হাজার চাঁদা দাবি করে। টাকা না দেয়ায় তাকে গুলী করে। এতে তার পেটে পিঠে হাতে গুলী লাগে। আহত অবস্থায় প্রথমে শ্যামলীর একটি ক্লিনিকে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখানেই তার মৃত্যু হয়। 

ছুরিকাঘাতে কাঁচামাল ব্যবসায়ী আহত

রামপুরার উলন রোডে রতন মিয়া (২৮) নামের কাঁচামাল ব্যবসায়ীকে ছুরিকঘাত করে টাকা ও মোবাইল ফোন নিয়ে গেছে ছিনতাইকারীরা। গতকাল শনিবার ভোর ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহত রতন রামপুরা পূর্ব উলন রোডে একটি বাসায় ভাড়া থাকেন। তিনি রামপুরা কাঁচাবাজারে কাঁচামালের ব্যবসা করেন। 

আহত রতনের খালা রিনা বেগম জানান, ভোরে কারওয়ান বাজার যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হয়ে উলন রোড ও হাতিরঝিলের মধ্যবর্তী স্থানে এসে একটি পিকাপ ভ্যানে ওঠার সময় ৪-৫ জন ছিনতাইকারী রতনের পেটে ও হাতে ছুরিকাঘাত করে সাত হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। আহত অবস্থায় তার আত্মীয়স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করে। 

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ বক্সের ইনচার্জ (এসআই) বাচ্চু মিয়া জানান, বর্তমানে রতন ঢামেকে ভর্তি। তার অবস্থা গুরুতর। 

উত্তরায় সড়ক দুর্ঘটনায় বৃদ্ধা নিহত

উত্তরায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন এক বৃদ্ধা। তার বয়স আনুমানিক ৬০ বছর। গতকাল শনিবার সকালের দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

উত্তরা পশ্চিম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. জানে আলম দুলাল জানান, সকালে উত্তরার রাজলক্ষ্মী মার্কেটের সামনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে রাস্তা পারাপারের সময় অজ্ঞাত গাড়ির চাপায় ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান ওই বৃদ্ধা। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য সকাল সাড়ে ৮টায় নিহতের লাশ উদ্ধার করে পাঠানো হয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে। তার পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি। 

এদিকে , যাত্রাবাড়ীর চৌরাস্তায় বাসের ধাক্কায় অজ্ঞাতপরিচয় (১০) এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মুমুর্ষ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুপুর দেড়টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এবং এই ঘটনায় অজ্ঞাত (১৮) বছরের এক যুবক আহত হয়েছেন। 

পথচারী মো. সৈকত জানান, যাত্রাবাড়ীর চৌরাস্তায় রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি যাত্রীবাহী বাস শিশুসহ অজ্ঞাত (১৮) নামে আরেক জনকে ধাক্কা দেয়। আহত অবস্থায় অজ্ঞাত শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এবং আরেক যুবক চিকিৎসাধীন আছে। 

অপরদিকে মতিঝিল শাপলা চত্বরে এনা পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফুটপাতে উঠে গেলে রিকশাচালকসহ ৬ পথচারী আহত হয়েছেন। দুপুর দেড়টার এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, নাঈম (২৮), শফিক (৩৪), আ. রশিদ (৪৫), আলামিন (৩৫), জালাল মিয়া (৪৫) ও রঞ্জন (২৭)। 

ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া জানান, আহতরা বর্তমানে ঢামেকে চিকিৎসাধীন। শিশুরটির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ