ঢাকা, রোববার 16 April 2017, ৩ বৈশাখ ১৪২৩, ১৮ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মাগুরায় বৃষ্টির অভাবে আমের গুটি ঝরে যাচ্ছে

ওয়ালিয়র রহমান, মাগুরা থেকে: মাগুরা জেলার ৪ উপজেলায় এবার আমের প্রচুর গুটি  দেখা যাচ্ছে। তবে সময়মত বৃষ্টির অভাবে তা ঝরে গিয়ে আমের ফলন বিপর্যয়  দেখা দিতে পারে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। মাগুরা জেলার ৪ উপজেলায় মোট ১ হাজার হেক্টর জমিতে আমের আবাদ হয় বলে কৃষি বিভাগ থেকে জানান হয়। এর মধ্যে মাগুরা সদর উপজেলায় ৪৫০ হেক্টর, শ্রীপুর উপজেলায় ৩২৫ হেক্টর, মহম্মাদপুর উপজেলায় ১৭৫ হেক্টর এবং শালিখা উপজেলায় ৫০ হেক্টর জমিতে আমের চাষ হয়। যার থেকে হেক্টর প্রতি ২০ মেট্রিক টন আম উৎপাদন হয় বলে কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের থেকে জানান হয়। বেশ কিছুদিন ধরে জেলার বিভিন্ন এলাকায় ব্যবসায় ভিত্তিতে আমের চাষ শুরু হয়েছে। তবে আমের পরিচর্যার ব্যাপারে অভিজ্ঞতা না থাকায় মাগুরার আম চাষিরা প্রতি বছরই ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছে। প্রতি মৌসুমে আম গাছের মুকুল দেখা দিলেও শেষ পর্যন্ত এ মুকুল থেকে পরিচর্যা জ্ঞান না থাকা এবং কৃষি বিভাগের এ ব্যাপারে কোন পরিকল্পনা না থাকায় কৃষকদের ভাগ্যে আম জোটেনা।
এবার অধিকাংশ গাছে আমের গুটি প্রচুর দেখা যায়। কিন্তু গুটি গুলো ঝওে যাচ্ছে। পরিচর্যা জ্ঞান না থাকায় এ অবস্থা হচ্ছে বলে ধারণা করছে অনেকেই। আম মানুষের কাছে খুব প্রিয় ফল এবং এর থেকে আর্থিকভাবে লাভবান হয় বাগান মালিকরা। আর এ জন্যে আম চাষে উৎসাহী হয়ে  মাগুরা জেলার বিভিন্ন এলাকায় আমের বাগান গড়ে উঠছে। বিশেষ করে মাগুরায় ফজলী, ল্যাংড়া, হীম সাগর, আ¤্রপালী, গোপাল ভোগ, বোম্বাই, লাখনাই তোষা প্রভৃতি জাতের আমের আবাদ হয়। জেলার শত্রুজিৎপুর, বিনোদপুর, কুচিয়ামোড়া, ইছাখাদা, হাজরাপুর, রাঘবদাইড়. খালিমপুর, আলাইপুর, হাজীপুর, রাওতড়া, কাশীনাথপুর, বরিশাট, বারইপাড়া, শ্রীকোল, কানুটিয়া, গ্রামে আমের বাগান গড়ে উঠছে।
আম চাষীরা এবার আমের গুটির ব্যপকতা দেখে উৎফুল্ল হয়ে নানান স্বপ্ন দেখছিলেন। কিন্তু আমের গুটি ছোট অবস্থায়ই  ঝরে পড়ায় তারা আশাহত হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ