ঢাকা, রোববার 16 April 2017, ৩ বৈশাখ ১৪২৩, ১৮ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

লালমনিরহাটে বাড়ছে শিশু রোগ ॥ ১ জনের মৃত্যু

 

মোঃ লাভলু শেখ, লালমনিরহাট থেকে : গত কয়েকদিন থেকে লালমনিরহাটে দিনে প্রচন্ড গরম আর রাতে ঠান্ডা ওই বৈরি আবহাওয়ায় নিউমেনিয়া ও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা।

আবহাওয়ার এ বিরূপ প্রভাবের কারণে জেলার ৫টি হাসপাতালে প্রতিদিনই নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত শিশু ভর্তি হচ্ছে। সোমবার বিকেলে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে কালীগঞ্জ উপজেলার গোড়ল এলাকার বিমল চন্দ্রের শিশু সন্তান জয়ন্ত (১০ মাস) আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতেই শিশুটি মারা যায় বলে জানান কর্মরত চিকিৎসক ডাঃ কাসেম আলী।

গত ৩ দিন ধরে এ জেলার আবহাওয়ায় ব্যাপক পরিবর্তন ঘটেছে। এতে নিউমেনিয়া, ডায়রিয়া, সর্দি-জ্বরসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে শিশুদের ভিড় বাড়ছে জেলার হাসপাতালগুলোতে। দিনে প্রখর রোদ ও ভ্যাপসা গরম এবং সন্ধার পর শুরু হয় ঠান্ডা। হঠাৎ আবহাওয়ার এ পরিবর্তনের কারণে এমনটা হচ্ছে বলে চিকিৎসকরা দাবি করেছেন।

২ মাসের শিশু অপূর্বকে নিয়ে আদিতমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসেছেন মা ভারতী রানী। তিনি জানান, গত ২ দিন ধরে তার ছেলে সর্দি জ্বরে ভুগছে। শিশুর শ্বাসকষ্ট দেখে তিনি তাকে এখানে নিয়ে এসেছেন।

একই কথা বলেন হাসপাতালে আসা রোগীর অভিভাবকরা। শুধু শিশুরাই নয়, সব বয়সের মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে সর্দি জ্বরসহ নানান রোগে। হাসপাতাল গেটে জাহাঙ্গীর আলম (৫০) নামে ১ ব্যক্তি জানালেন, গত ২ দিন ধরে সর্দি জ্বরে ভুগছেন তিনি। তার কয়েক প্রতিবেশীও জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানান তিনি।

লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আজমল হক জানান, বৈরি আবহাওয়ার কারণে সর্দি জ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। তবে শিশুরাই বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। বৈরি এ আবহাওয়ায় শিশুদের যেন ঠান্ডা না লাগে সেদিকে খেলায় রাখতে অভিভাবকদের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডা. আমিরুজ্জামান জানান, আবহাওয়ার পরিবর্তন হওয়ায় ভাইরাস জনিত সর্দি জ্বরে আক্রান্ত হচ্ছে অনেকেই। সব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শিশুদের বিভিন্ন রোগসহ জ্বর সর্দির চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ