ঢাকা, রোববার 16 April 2017, ৩ বৈশাখ ১৪২৩, ১৮ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

জার্মানির সিকপে রফতানির মাধ্যমে ওয়ালটন কম্প্রেসারের যাত্রা শুরু

 

 

জার্মানভিত্তিক বিশ্বের শীর্ষ হাইজহোল্ড কম্প্রেসার উৎপাদনকারি প্রতিষ্ঠান ‘সিকপ জিএমবিএইচ’ এ যন্ত্রাংশ রফতানির মাধ্যমে যাত্রা শুরু করলো নবনির্মিত ওয়ালটন কম্প্রেসার কারখানা। গত ৬ এপ্রিল অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত ওয়ালটন কম্প্রেসার কারখানা উদ্বোধন করেন। ওইদিনই অর্থমন্ত্রীর সামনে রফতানি সংক্রান্ত নথি উপস্থাপন করে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ। 

জানা গেছে, প্রথম ধাপে সিকপ ৪ লাখ কাস্টিং পার্টস নিচ্ছে ওয়ালটন থেকে। যার শিপমেন্ট সম্পন্ন হবে চলতি মাসেই। সিকপে বার্ষিক ১ মিলিয়ন কাস্টিং পার্টস রফতানির চুক্তিও ইতোমধ্যে সম্পন্ন করেছে ওয়ালটন। যন্ত্রাংশের পাশাপাশি সম্পূর্ণ তৈরি কম্প্রেসার রফতানির প্রক্রিয়াও চলছে।

উল্লেখ্য, কম্প্রেসার তৈরির কাঁচামাল হিসেবে বাৎসরিক প্রায় ৭ মিলিয়ন যন্ত্রাংশ প্রয়োজন হয় সিকপের। চাহিদার পুরোটাই বাংলাদেশে তৈরি যন্ত্রাংশ দিয়ে মিটানোর প্রত্যাশা করছে ওয়ালটন। সিকপের পাশাপাশি জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক খ্যাতনামা কম্প্রেসার উৎপাদনকারি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকেও বার্ষিক ২ মিলিয়ন যন্ত্রাংশ রফতানি আদেশ পেতে যাচ্ছে ওয়ালটন। 

উদ্বোধনের পর থেকেই বিভিন্ন দেশের কম্প্রেসার উৎপাদন এবং আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করছেন। আগ্রহ দেখাচ্ছেন বাংলাদেশে তৈরি সর্বোচ্চ গুণগতমানের কম্প্রেসার ও এর আনুষঙ্গিক যন্ত্রাংশ আমদানির। চীনে চলমান ক্যান্টন ফেয়ারেও ওয়ালটন কম্প্রেসারের প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছে বিশ্বের অনেক দেশের ক্রেতারা। 

ওয়ালটন ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে প্রায় ১৬ লাখ বর্গফুট জায়গাজুড়ে বিশ্বের শীর্ষ প্রযুক্তি ও ভারী মেশিনারিজের সমন্বয়ে স্থাপন করা হয়েছে বাংলাদেশের প্রথম কম্প্রেসার কারখানা। যেখানে রয়েছে বিশাল স্টিল, জিংক, এ্যালুমিনিয়াম ও কপার কাস্টিং এবং ফাউন্ড্রি। আরো রয়েছে অত্যাধুনিক টেস্টিং ও মেটাল প্রসেসিং সিস্টেম। আর উৎপাদিত কম্প্রেসার ও এর কাঁচামালের সর্বোচ্চ গুণগতমান বজায় রাখতে শক্তিশালী ‘কোয়ালিটি কন্ট্রোল’ (কিউসি) এবং গবেষণা ও উন্নয়ন (আরএন্ডডি) বিভাগ স্থাপন করা হয়েছে। কর্মসংস্থান হয়েছে প্রায় ৬ হাজার লোকের। যার মধ্যে প্রকৌশলী ৩৫ শতাংশ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ