ঢাকা, সোমবার 17 April 2017, ৪ বৈশাখ ১৪২৩, ১৯ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

চট্টগ্রাম আউটার স্টেডিয়ামে সুইমিং পুল নির্মাণ বন্ধে ছাত্রলীগের ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম

চট্টগ্রাম অফিস: চট্টগ্রাম আউটার স্টেডিয়ামে সুইমিং পুল নির্মাণ বন্ধ করে স্থাপনা সরিয়ে নিতে ছাত্রলীগ ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে। গতকাল চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক সামসুল আরেফিনের কাছে আউটার স্টেডিয়াম খেলার মাঠে সুইমিং পুল ও অপ্রয়োজনীয় স্থাপনা নির্মাণের প্রতিবাদে অভিযোগপত্র ও স্মারকলিপি প্রদান করেন চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগ। জেলা প্রশাসকের অনুপস্থিতিতে স্বারকলিপি গ্রহণ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান (শিক্ষা ও আইসিটি)। অভিযোগপত্র ও স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি, সহ সভাপতি রুমেল বড়–য়া রাহুল, নাঈম রনি, নোমান চৌধুরী, ওমর ফারুক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর, রনি মির্জা, সুজন বর্মণ, প্রমুখ।
স্বারকলিপিতে বলা হয়,চট্টগ্রামের খেলার মাঠ বা খোলা উদ্যানের প্রচুর সংকট বর্তমানে পরিলক্ষিত হয়েছে। নগরীতে দুইটা স্টেডিয়াম থাকলেও আমাদের পাড়ায় মহল্লায় পর্যাপ্ত পরিমানে খোলা উদ্যান বা খেলার মাঠ নেই। এই মাঠে প্রতিদিন সকাল বিকালে বেলা বিভিন্ন এলাকার শ্রেণী পেশার শিশু কিশোর তরুন যুবক ও বয়স্ক নারী পুরুষ তাদের খেলাধুলা ও শরীর চর্চা করে আসছেন। মাঠটিতে বেশ কয়েকটি ক্রিকেট ও ফুটবল একাডেমি অনুশীলন করছে। বছরে নামি দামী কয়েকটি টূর্নামেন্ট এই মাঠে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।
 স্বারকলিপিতে বলা হয়,সিজেকেএসের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন প্রথমবার সিজেকেএস সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের জিমনেসিয়ামের নিজস্ব জমিতে সুইমিংপুল নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে ঐ জমিতে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ও হোটেল রেস্টুরেন্ট ভাড়া দেয়া হয়। যুব ক্রীড়া মন্ত্রণালয় বছর দুয়েক আগে চট্টগ্রামের শারীরিক শিক্ষা কলেজে একটি সুইমিংপুল নির্মাণ করলেও পর্যাপ্ত শিক্ষার্থীদের অভাবে তা নষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়েছে। জাতিসংঘ পার্কেও অনুরূপ এমন একটি সুইমিংপুল বিগত চসিক মেয়র এম মন্জুর আলম নির্মাণ করলেও তা বর্তমানে অকেজো অবস্থায় আছে। ঠিক এমন পরিস্থিতিতে সিজেকেএস আকস্মিকভাবে তার পরিকল্পনা পরিবর্তন করে চট্টগ্রামের খেলাধুলার তীর্থস্থান হিসাবে পরিচিত এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের আউটারের খোলা উদ্যানকে সুইমিংপুল, গাড়ি পার্কিং স্পেস, গণশোচাগার নির্মাণের মতো অনৈতিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। চট্টগ্রাম উন্নয়ন কতৃর্পক্ষের কোন প্রকার ছাড়পত্র না নিয়ে অসৎ উদ্দেশ্যে নির্মিত হতে যাওয়া এই সুইমিংপুল, গণশৌচাগার নির্মাণ কাজ বন্ধ করার জন্য ৪৮ ঘন্টা সময় বেঁধে দিতে চাই। আমরা আশা করব আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে এই খোলা উদ্যানে সকল প্রকার নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে আপনি কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। অন্যতায় আপনার মাধ্যমে সিজেকেএস এর সংশ্লিষ্ট সকলকে যে কোন অপ্রীতিকর ঘটনার দায়ভার নিতে হবে বলে চূড়ান্তভাবে হুঁশিয়ার করা হল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ