ঢাকা, মঙ্গলবার 18 April 2017, ৫ বৈশাখ ১৪২৩, ২০ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বাংলাদেশে বড় অংকের বিনিয়োগ করতে চায় মালয়েশিয়া

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশের শ্রমের সহজলভ্যতায় আকৃষ্ট হচ্ছে মালয়েশিয়া। সম্প্রতি সেদেশের একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দল সফর করে ইতিবাচক মনোভাব জানিয়েছে। প্রথম অবস্থায় কৃষি, অবকাঠামো, ওষুধ আর জ্বালানি সেক্টরে বড় বাজেটের বিনিয়োগের কথা তারা জানিয়েছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিআইডিএ) সঙ্গে মালয়েশিয়ার ব্যবসায়ী সংগঠনের একটি প্রতিনিধি দল সাক্ষাৎ করেছে। 

সাক্ষাৎকালে প্রতিনিধি দলটির সদস্যরা বাংলাদেশে শিল্প-কারখানা স্থাপনে বিনিয়োগের আগ্রহ ব্যক্ত করেন গত সপ্তাহে বিআইডিএর উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপকালে তারা এ আগ্রহ ব্যক্ত করেন বলে বিআইডিএ সূত্র জানিয়েছে। 

সূত্র জানায়, মালয়েশিয়ার কুচিং চাইনিজ জেনারেল চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির ( কেসিজিসিসিআই) ৩৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল সম্প্রতি বিআইডিএ’র উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে সভায় মিলিত হয়। বাংলাদেশে বিনিয়োগ সম্ভাব্যতা বিষয়ে দুই পক্ষের মধ্যে আলোচনা হয়। সভায় বিআইডিএর পক্ষে সভাপতিত্ব করেন নির্বাহী সদস্য নাভাস চন্দ্র মন্ডল।

বিআইডিএ’র এক কর্মকর্তা জানান, মালয়েশিয়ার বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশের বিনিয়োগ-পরিবেশে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। প্রতনিধি দলটি কৃষি ও খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ, অবকাঠামো, ফার্মাসিউটিক্যালস ও এনার্জি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। এছাড়া বাংলাদেশে বিদেশী বিনিয়োগকারীদের জন্য তুলনামূলকভাবে কম খরচে জমি, বিদ্যুৎ, সস্তা শ্রম ও সাম্প্রতিককালে ‘ইজ অব ডুয়িং বিজনেস’-এর সংস্কার এবং শতভাগ সরাসরি বৈদেশিক বিনিয়োগের (এফডিআই) সুযোগ থাকায় তারা শিল্প স্থাপনেও আগ্রহ ব্যক্ত করেন।

বিআইডিএ’র নির্বাহী সদস্য নাভাস চন্দ্র মন্ডল জানান, বাংলাদেশে বর্তমানে বিনিয়োগের চমৎকার পরিবেশ বিদ্যমান। বাংলাদেশ বর্তমানে রাজনৈতিকভাবে স্থিতিশীল। এছাড়া সরকার বিদেশী বিনিয়োগকারীদের শতভাগ নিরাপত্তা নিশ্চিত করছে।

ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের উদ্দেশে বিআইডিএর পরিচালক তৌহিদুর রহমান খান বলেন, চীনের তুলনায় বাংলাদেশে শ্রম মজুরি এক-তৃতীয়াংশ। এছাড়া বিভিন্ন কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি তৈরি করা হচ্ছে, যা বৈদেশিক বিনিয়োগে সহায়ক।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ