ঢাকা, মঙ্গলবার 18 April 2017, ৫ বৈশাখ ১৪২৩, ২০ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ইসিতে সাংবাদিক লাঞ্ছিত

স্টাফ রিপোর্টার: প্রায় মাসখানেক ধরে নির্বাচন কমিশন তার ‘নির্বাচন ভবনে’ সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার সংরক্ষিত করার কথা বললেও গতকাল সোমবার হঠাৎ করেই ওই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করে সংস্থাটি।

এদিন ইসলামিক ফাউন্ডেশন ভবনে স্থাপিত জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) শাখায় সাংবাদিক সম্মেলন শেষ করে ‘নির্বাচন ভবনে’ প্রবেশ করতে গেলে বাধা দেয়া হয় সাংবাদিকদের। একইসঙ্গে অনেককে লাঞ্ছিত করেন অফিস সহাকারী মোহাম্মদ মাসুদ ও নিরাপত্তারক্ষী নুরুল ইসলাম। এছাড়া জেলে পুরে ফেলার হুমকিসহ অকথ্য ভাষায় দুর্বব্যবহার করেন তারা। আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনের মূল ফটকসহ প্রত্যেক তলার প্রবেশ পথে একসেস কন্ট্রোল বসিয়ে সকলের প্রবেশাধিকার সংরক্ষিত করছে নির্বাচন কমিশন।

এ বিষয় নিয়ে ইসি সচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহর সঙ্গে কথা বলতে গেলে তিনিও সাংবাদিকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। তিনি রাগতস্বরে বলেন, ‘আপনারা আসলে আসেন, না আসলে না আসেন। আমাদের কিছু করার নাই। নির্বাচন কমিশনের দ্বিতীয় তলা ও চতুর্থ তলা ছাড়া অন্য কোনো তলায় সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার দেয়া যাবে না।’

দ্বিতীয় তলায় ইসি জনসংযোগ কর্মকর্তার কার্যালয় আর চতুর্থ তলা সচিব নিজেই বসেন। তারা শুধুমাত্র ইসির প্রচারণামূলক খবরই গণমাধ্যমকে দেন। কিন্তু প্রতিদিন নির্বাচন সংশ্লিষ্ট নানা অনিয়মের খবর খুঁজে বের করতে সাংবাদিকদের বিভিন্ন পদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গেও কথা বলতে হয়। এছাড়া সচিবকে সব সময় পাওয়া যায় না। তাই সাংবাদিকদের দাবি ছিল নির্বাচন ভবনের সব তলাতেই (১০ তলা ভবন) প্রবেশাধিকার দেয়ার।

কিন্তু ইসি সচিব আব্দুল্লাহ বলেন, ‘এটা সচিবালয় নয়, এটা নির্বাচন কমিশন। এখানে নিরাপত্তার স্বার্থে আমরা যা নিয়ম করবো, সেটাই মানতে হবে। আপনারা চাইলেই তো ক্যান্টনমেন্টে প্রবেশ করতে পারেন না। তাই সাংবাদিকদের চাইলেই ফ্রি একসেস দিতে হবে, এমন তো কোনো কথা নেই। আপনারা দুই ফ্লোর ছাড়া অন্য ফ্লোরে কি জন্য যাবেন, আপানাদের তো কোনো কাজ নাই। অন্য তলায় আপানাদের কি কাজ? এই দুই তলায় আসবেন, সাক্ষাৎকার যা লাগে, নেবেন, চলে যাবেন। অন্য তলায় যেতে হবে কেন?’

‘আমি অনেক জায়গায় কাজ করেছি। কিভাবে সবকিছু হ্যান্ডেল করতে হয় আমি জানি’-এমন কথাও যোগ করে সচিব।

লাঞ্ছিত করার বিষয়ে ইসি সচিব বলেন, আপনারা লিখিত অভিযোগ দেন। তদন্ত করে দোষী হলে আমরা ব্যবস্থা নেব।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ