ঢাকা, মঙ্গলবার 18 April 2017, ৫ বৈশাখ ১৪২৩, ২০ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় স্বামীকে কুপিয়ে জখম

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) সংবাদদাতাঃ স্ত্রীর পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় স্ত্রী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন কুপিয়ে জখম করেছে স্বামী এমাদুল হককে। এঘটনায় আহত এমাদুল(৩২) বাদী হয়ে শ্বশুর, স্ত্রী, শাশুড়ি ও শালীকে আসামী করে গতকাল বুধবার রাতে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলা সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার উত্তর মিঠাখালী গ্রামের মৃত হাসেম হাওলাদের ছেলে এমাদুল হকের সাথে দুর্গাপুর গ্রামের ফারুক মিয়ার মেয়ে মাহফুজা বেগমের (২৮) সাথে সাত মাস পূর্বে বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর স্ত্রীর কথা অনুযায়ী দুর্গাপুর গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে এমাদুল বসবাস শুরু করে। এর কিছুদিন পরে এমাদুলের স্ত্রী পার্শ্ববর্তী জনৈক মুসা গাজীর সাথে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। সম্প্রতি এঘটনা এমাদুল শ্বশুর, শাশুড়িকে অবহিত করলে শ্বশুর ফারুক মিয়া, স্ত্রী মাহফুজা বেগম, শাশুড়ি পারুল বেগম ও শালিকা রাবেয়া আক্তার ক্ষিপ্ত হয়ে এমাদুলের উপর হামলা চালিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এসময় স্থানীয়রা এমাদুলকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।
আহত এমাদুল জানান, ঘটনার দিন আমাকে আহত করে আমার জমি ক্রয় করা জন্য জমানো ৮০ হাজার টাকা, মোবাইল ও আংটিসহ প্রায় ১লাখ ২০ হাজার আত্মসাৎ করে। এদিকে  আমার স্ত্রী নতুন করে স্থানীয় বড়মাছুয়া গ্রামের সিদ্দিক ফরাজীর ছেলে মাসুম ফরাজীর সাথে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে এবং ওই বাড়িতেই বর্তমানে বসবাস করছে। আমি আমার স্ত্রী ও আত্মসাৎকৃত টাকা-পয়সা ফেরত চাই।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ