ঢাকা, মঙ্গলবার 18 April 2017, ৫ বৈশাখ ১৪২৩, ২০ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

১২ বছরেও সংস্কার হয়নি

ফেনী সংবাদদাতা : ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার চরদরবেশ ইউনিয়নে ছোট ফেনী নদীর ওপর নির্মিত কাজিরহাট রেগুলেটর দীর্ঘ ১২ বছর পরও সংস্কার করা হয়নি। রেগুলেটরের দুই পাশে ফেনী ও নেয়াখালী জেলার দুই উপজেলার দুই লাখ মানুষের যাতায়াতের মাধ্যম হচ্ছে এখন একটি মাত্র নৌকা। এই নৌকা দিয়ে স্কুল-কলেজ-মাদরাসার ছাত্র-ছাত্রী ছাড়াও প্রতিদিন ৭-৮ হাজার মানুষ চলাচল করে। কর্তৃপ্ক্ষ বলছে রেগুলেটরটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। আর সাধারণ মানুষের দাবি রেগুলেটর সংস্কার করা না হলেও এখানে একটি ব্রিজ করা হোক।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে সোনাগাজী উপজেলার ছোট ফেনী নদীর ওপর নির্মিত কাজীর হাট রেগুলেটরটি ভেঙে পড়ে আছে। ফেনীর সোনাগাজী উপজেলা ও নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সাধারণ মানুষ, নারী, শিশু নৌকা করে পার হতে দেখা গেছে। ঝুঁকি নিয়ে বহু নারীকে কোলে শিশুসহ গৃহস্থলি আসবাবপত্র, হাঁস, মুরগী, গরু, ছাগল নৌকয় করে পার করছে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, এভাবে নদীর দুই পাশের প্রায় দুই লাখ মানুষ চরম ভোগান্তিতে দিন পার করছে। এতবেশী জনবহুল ও দুই জেলার মানুষের চলাচলের এই গুরুত্বপূর্ণ  রেগুলেটরটি ভেঙে যাওয়ায় একটি মাত্র নৌকাই তাদের চলাচলের মাধ্যম। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাতায়াতে একদিকে ছাত্র-ছাত্রীদের যেমন সময় নষ্ট হচ্ছে অন্যদিকে আর্থিক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। মাদরাসার ছাত্র আবদুর রহমান জানান, প্রতিদিন এই নৌকা পার হতে তাদের ২০ টাকা দিতে হয়।
এক নবজাতক শিশুর মা সাদিয়া আক্তার জানান, ‘খুব ঝুঁকি আর ভয়ের মধ্যেও কোলে এক শিশু, হাতে ধরে অপর শিশুকে নিয়ে নৌকা দিয়ে পার হচ্ছি। রেগুলেটরটি ঠিক থাকলে বা সরকার এখানে একটি ব্রিজ করে দিলে আমাদের এই দুর্ভোগ পোহাতে হতোনা।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ