ঢাকা, মঙ্গলবার 18 April 2017, ৫ বৈশাখ ১৪২৩, ২০ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

পরশুরামে আ’লীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ ॥ আহত ৮

ফেনী সংবাদদাতা : ফেনীর পরশুরামের মির্জানগর ইউনিয়নে সরকার দলীয় নেতাদের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে গত বুধবার দুপুরে আওয়ামীলীগ-যুবলীগের সংঘর্ষে ৮ জন আহত হয়েছে। আহতদের স্থানীয় ও বিভিন্ন বেসরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও দলীয় সূত্র জানায়, উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মো: নুরুজ্জামান ভুট্টু ও ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ফজলুল বারী মনছুর এর মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন বিরোধ চলছিল। মঙ্গলবার পরশুরাম সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে গত বুধবার সকালে চেয়ারম্যান সমর্থক পলাশ পাভেল ও মনছুর সমর্থক সোহেলের সাথে কথাকাটাকাটি হয়। পরে পলাশের লোকজন সোহেলকে মারধর করে। হামলা-পাল্টা হামলায় অন্তত ৮ জন আহত হয়েছে। খবর পেয়ে উভয় পক্ষের লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে বাজারে পাল্টাপাল্টি মহড়া দেয়। আহতদের মধ্যে মো: সোহেল (২৫), মো: সাদ্দাম হোসেন (২৬), মো: নবী (২২), ফিরোজ আহাম্মদ (২৪) ও মো: এয়াকুব (১৯) এর নাম জানা গেছে। ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ফজলুল বারী মনছুর জানান, বিনা উস্কানীতে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সমর্থকরা তার লোকজনকে মারধর করে। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মজুমদার জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারামারি বিষয়টি তিনি শুনেছেন। পরশুরাম মডেল থানার ওসি মো: আবুল কাশেম চৌধুরী জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ