ঢাকা, মঙ্গলবার 18 April 2017, ৫ বৈশাখ ১৪২৩, ২০ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বাজেটে তামাকপণ্যে কর বাড়ানোর দাবি ‘আত্মা’র

স্টাফ রিপোর্টার : আগামী বাজেটে তামাকজাত পণ্যের ওপর করহার বাড়ানো দাবি জানিয়েছে এন্টি টোব্যাকো মিডিয়া এলায়েন্স (আত্মা)। এতে করে স্বাস্থ্য ঝুঁকির হাত থেকে বাচবে দেশ। অন্যদিকে বাড়বে রাজস্বও।
গতকাল সোমবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে প্লানার্স টাওয়ারে আয়োজিত এক সভায় এ দাবি জানানো হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের আহ্বায়ক মর্তুজা হায়দার লিটন।
সিগারেটের ওপর করারোপের জন্য ব্যবহৃত মূল্যস্তর প্রথা পর্যায়ক্রমে তুলে দিয়ে সব ধরনের সিগারেটের ওপর সুনির্দিষ্ট এক্সাইজ ট্যাক্স আরোপ করার দাবি জানায় তামাকবিরোধী সংগঠন ‘আত্মা’। ‘আত্মা’ মনে করে এ দাবি বাস্তবায়ন হলে সিগারেটের মূল্য উল্লেখযোগ্য হারে বাড়বে এবং ধূমপানের হার কমবে।
‘আত্মা’র অন্যান্য দাবির মধ্যে রয়েছে একটি মূল্যস্তরের সকল ব্র্যান্ডের ওপর সুনির্দিষ্ট কর একই হতে হবে। বিড়ির ওপর উচ্চ হারে সুনির্দিষ্ট এক্সাইজ ট্যাক্স আরোপ করতে হবে। এর ফলে বিড়ির মূল্য উল্লেখযোগ্য হারে বাড়বে এবং ব্যবহারও কমবে। ধোঁয়াবিহীন তামাকপণ্যের ওজনের ওপর ভিত্তি করে উচ্চহারে সুনির্দিষ্ট এক্সাইজ কর আরোপ করতে হবে। পর্যায়ক্রমে সকল তামাকপণ্যে অভিন্ন পরিমাণে প্যাকেট বা কৌটায় বাজারজাত করতে হবে। আয় ও সময়ের সাথে সঙ্গতি রেখে প্রকৃত মূল্য বৃদ্ধির জন্য তামাকপণ্যের মূল্য বাৎসরিকভিত্তিতে সমন্বয় করতে হবে।
এছাড়া তামাকের কর প্রশাসন শক্তিশালী করাসহ কর সংগ্রহ ব্যবস্থা উন্নত করা এবং কর ফাঁকি রোধকল্পে তামাকপণ্যেও শুল্ক বিক্রয় প্রথা তুলে দিয়ে করারোপ করার দাবি জানায় ‘আত্মা’।
‘আত্মা’র পক্ষ থেকে আগামী ২০১৭-১৮ অর্থবছরে তামাকপণ্যের খুচরা মূল্যের ওপর ২ শতাংশ হারে স্বাস্থ্য উন্নয়ন সারচার্জ আরোপ করার কথাও বলা হয়। এখান থেকে আদায়কৃত অতিরিক্ত রাজস্ব আয় তামাক নিয়ন্ত্রণ অসংক্রামক রোগ মোকাবেলায় ব্যয় করতে হবে। একটি সহজ ও কার্যকরী তামাককর নীতিমালাপ্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করতে হবে, যা তামাকের ব্যবহার হ্রাস এবং রাজস্ব বৃদ্ধিতে ভুমিকা রাখবে।
‘আত্মা’র পক্ষ সিগারেট ১০ শলাকার প্যাকেট: নিম্নস্তরের সিগারেট ২৫ দশমিক ৯৫ টাকা, উচ্চস্তরের সিগারেট ৪৯ দশমিক ৬০ টাকা এবং প্রিমিয়াম স্তরের সিগারেট ৮২ টাকা সুনির্দিষ্ট কর ধার্য করার কথা বলা হয়েছে।
এছাড়া নিম্নস্তরের সিগারেটের খুচরা মূল্য ২৩ টাকার স্থলে কমপক্ষে ৪০ টাকা, উচ্চস্তরের সিগারেটের খুচরা মূল্য ৭০ টাকা এবং প্রিমিয়ামস্তরের সিগারেটের খুচরা মূল্য কমপক্ষে ১২০ টাকা নির্ধারণ করার দাবি জানিয়েছে ‘আত্মা’। এর ফলে সিগারেট থেকে অতিরিক্ত ৫২০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় হবে এবং একই সাথে সিগারেটের ব্যবহার কমবে। মূল্যস্ফীতি এবং আয়প্রবৃদ্ধির সাথে সঙ্গতি রেখে বাৎসরিকভিত্তিতে সিগারেটের মূল্য এবং সুনির্দিষ্ট করের পরিমাণ সমন্বয় করা।
বিড়ি ২৫ শলাকা ফিল্টারবিহীন: প্রতি ২৫ শলাকা বিড়ির ওপর ১০ দশমিক ১৩ টাকা সুনির্দিষ্ট এক্সাইজ কর আরোপ করে বিড়ির খুচরা মূল্য ১০ দশমিক ৬১ টাকার স্থলে ২২ দশমিক ৩০ টাকা নির্ধারণ করা। সুনির্দিষ্ট করের পরিমাণ মুল্যস্ফীতি এবং আয় প্রবৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গতি রেখে বাৎসরিকভিত্তিতে সমন্বয় করা। এর ফলে বিড়ি থেকে অতিরিক্ত ১০৩ কোটি টাকা রাজস্ব আয় হবে এবং একই সাথে বিড়ির ব্যবহার কমবে।
ধোঁয়াবিহীন জর্দা ও গুল : প্রতি ২০ গ্রাম ওজনের ধোঁয়াবিহীন তামাকপণ্যে ১৬ টাকা সুনির্দিষ্ট এক্সাইজ কর আরোপ করে এসআরও এর মাধ্যমে এর খুচরা মূল্য কমপক্ষে ৩২ টাকা নির্ধারণ করা। এর ফলে সরকার প্রতি ২০ গ্রাম ধোঁয়াবিহীন তামাকের কৌটা থেকে অতিরিক্ত ৬ টাকা রাজস্ব আয় করবে। সুনির্দিষ্ট করের পরিমাণ মূল্যস্ফীতি এবং আয় প্রবৃদ্ধির সাথে সঙ্গতি রেখে বাৎসরিকভিত্তিতে বৃদ্ধি করতে হবে।
প্রজ্ঞা-আত্মা মতবিনিময়
তামাকের উপর শুল্ক হার বাড়িয়ে সরকার আরো ৮শ’ কোটি টাকা রাজস্ব আহরণ বাড়াতে পারে। এ অতিরিক্ত শুল্ক আরোপের ফলে একদিকে তরুণ সমাজ তামাক সেবনে নিরুৎসাহিত হবে, অন্যদিকে বর্তমান ব্যবহারকারী তামাক ছাড়তে বাধ্য হবে। ফলে রাজস্ব বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে জনস্বাস্থ্য সুরক্ষা বাড়ানোসহ টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জন সহজ হবে।
গতকাল সোমবার সকালে যৌথভাবে বেসরকারি তামাকবিরোধী গবেষণা ও এডভোকেসি সংগঠন ‘প্রগতির জন্য জ্ঞান (প্রজ্ঞা)’ এবং তামাক-বিরোধী সাংবাদিকদের সংগঠন ‘এন্টি-টোব্যাকো মিডিয়া অ্যালায়েন্স (আত্মা) আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় এ তথ্য জানানো হয়। রাজধানীর বাংলামোটরে প্ল্যানার্স টাওয়ারে আসন্ন বাজেটকে সামনে রেখে সারাদেশের আত্মা-সদস্যদের নিয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আত্মা আহ্বায়ক লিটন হায়দার চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রজ্ঞা’র কো-অর্ডিনেটর হাসান শাহরিয়ার। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রজ্ঞার নির্বাহী পরিচালক এবিএম জোবায়ের, আত্মা’র সহ-আহ্বায়ক নাদিরা কিরণ, মিজান চৌধুরী প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ