ঢাকা, মঙ্গলবার 18 April 2017, ৫ বৈশাখ ১৪২৩, ২০ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

অবৈধ প্রধান শিক্ষককে সংবর্ধনা দিতে ২শ’ টাকা করে চাঁদা নির্ধারণ

রাজশাহী অফিস : হাইকোর্ট অবৈধ ঘোষণাকৃত ও অপসারিত রাজশাহীর লোকনাথ হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সোবহানকে বিদায় সংবর্ধনা দিতে যাচ্ছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। এজন্য ২শ’ টাকা করে চাঁদা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ নিয়ে শিক্ষকদের মাঝে চরম  ক্ষোভ বিরাজ করছে। অবৈধ প্রধান শিক্ষককে সংবর্ধনা প্রদান নীতিবহির্ভূত বলে দাবি করেছেন তারা।
কয়েকজন শিক্ষক গণমাধ্যমের কাছে জানিয়েছেন, আব্দুস সোবহানকে সংবর্ধনার জন্য দুইশত টাকা করে চাঁদা নির্ধারণ করা হয়েছে। হাইকোর্টের রায়ে অবৈধ ঘোষণা হওয়া একজন শিক্ষককে এইভাবে সংবর্ধনা দেয়া নীতিনৈতিকতা ও আইনের পরিপন্থী বলে দাবি করেছেন তারা। শিক্ষকরা আরো অভিযোগ করেছেন, গত আট বছর ধরে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন আব্দুস সোবহান। হাইকোর্টে অবৈধ ঘোষণা হওয়ার কারণে তিনি সরেও গেছেন। কিন্তু এখনো বিদ্যালয় তহবিলের হিসাব-নিকাশ বুঝে দেননি। উপরন্তু তাকে ঢাক-ঢোল পিটিয়ে বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করছে তারই আস্থাভাজন স্কুলের কতিপয় শিক্ষক। সাধারণ শিক্ষকদের আরো অভিযোগ, আব্দুস সোবহান বিদ্যালয় থেকে সরে গেলেও এখনো কলকাঠি নাড়ছেন। যে শিক্ষকের রিটের কারণে তাকে সরে যেতে হয়েছে সেই শিক্ষককে তার ইশারায় গ্রাচুইটির টাকা থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। রিটকারী শিক্ষক আবুল কাসেম জানান, তাকে ও মনিরুল ইসলামকে গ্রাচুইটির টাকা দেয়া হচ্ছে পুরানো স্কেলে। অথচ এর আগে সহিদুল ইসলাম নামের এক শিক্ষক অবসরে গেছেন এবং তাকে চলমান স্কেলে গ্রাচুইটির টাকা দেয়া হয়েছে। কিন্তু কেবল রিট করার কারণে আবুল কাসেমকে এবং মনিরুল ইসলামকে নীতি লঙ্ঘন করে পুরনো স্কেলে টাকা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ