ঢাকা, শনিবার 22 July 2017, ৭ শ্রাবণ ১৪২8, ২৭ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

শিশুদের ঘুম কমায় টাচস্ক্রিন ফোন ও ট্যাব

অনলাইন ডেস্ক: টাচস্ক্রিন মোবাইল ফোন ও ট্যাব নিয়ে খেলা করা ছোট শিশুরা অন্য শিশুদের চেয়ে কম ঘুমায় বলে একটি গবেষণায় উঠে এসেছে। এসব ডিভাইস নিয়ে প্রতি ঘণ্টা খেলার কারণে শিশুদের ১৫ মিনিট করে ঘুম কম হয় বলে বিজ্ঞানভিত্তিক ওই গবেষণার প্রতিবেদন সূত্রে জানা গেছে।

ব্রিকবেক ইউনিভার্সিটি অফ লন্ডন তিন বছরের কম বয়সী শিশুদের ৭৫০ জন অভিভাবককে জিজ্ঞাসাবাদ করে এই গবেষণা চালানো হয়েছে।

গবেষণা প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, বাড়িতে টাচস্ক্রিনযুক্ত ডিভাইস ব্যাপকভাবে জায়গা করে নিয়েছে। কিন্তু ছোট শিশুদের ওপর এর প্রভাবের বিষয় উন্নীতকরনে এখনো ঘাটতি রয়েছে।

সন্তানেরা কতক্ষণ টাচস্ক্রিন ডিভাইস নিয়ে খেলা করে বা তাদের ঘুমের ধরণ কেমন, এসব বিষয়ে জরিপে অংশ নেয়া অভিভাবকদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এতে দেখা যায় ৭৫ শতাংশ শিশু এসব ডিভাইস নিয়ে খেলা করে। এদের মধ্যে ৬ মাস থেকে ১১ মাস বয়সী ৫১ শতাংশ শিশু দিনে একবার এবং ২৫ মাস থেকে ৩৬ মাস বয়সীরা নিয়মিত খেলা করে।

এক ঘন্টা টাচস্ক্রিন ডিভাইস নিয়ে খেলার ফলে তারা ১৫ মিনিট করে কম ঘুমায়। তারা রাতের চেয়ে দিনে বেশি ঘুমায়।

তবে টাচস্ক্রিন ডিভাইস নিয়ে খেলা এসব ছোট শিশু দ্রুত মটর যান্ত্রিক দক্ষতা আত্মস্থ করতে পারে বলে ওই গবেষণায় দেখানো হয়েছে।

তাহলে কি তাদের টাচস্ক্রিন ডিভাইস নিয়ে খেলতে দেয়া উচিত?

এর উত্তর গবেষক ড. টিম স্মিত বিবিসি অনলাইনকে বলেন, বিষয়টি খুবই জটিল, বিজ্ঞান এখনো অপ্রাপ্ত বয়স্ক।আমরা এখনো প্রযুক্তির পেছন পেছন যাচ্ছি এবং এ বিষয়ে পরিষ্কার করে কিছু বলার সনময় এখনো হয়নি।

এই গবেষণাটি বর্ণনামূলক নয় বলে জানিয়েছেন ড. স্মিত। তবে ঘুমের সমস্যার সাথে টাচস্ক্রিনের সম্পর্ক থাকতে পারে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি ছোট শিশুদের টিভি দেখানের কথা বলেছেন।তবে টিভি অনুষ্ঠান যেন তাদের বয়সের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হয় তা খেয়াল রাখতে বলেছেন।কিন্তু তা অবশ্যই ঘুমের আগে নয়।

কভেন্ট্রি ইউনিভার্সিটির গবেষক ড. আনা জয়সি টাচস্ক্রিন এবং ঘুমের সম্পর্ক নিয়ে করা এই গবেষণাকে সময়োপযোগী বলেছেন।তিনি বলেন, টাচস্ক্রিন ঘুমে কতটা প্রভার ফেলে, যতদিন পর্যন্ত আমরা তা জানতে না পারবো, ততদিন অভিভাবকদের উচিত ছোট শিশুদের কাছ থেকে এসব ডিভাইস দূরে রাখা।-চ্যানেল আই

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ