ঢাকা, বুধবার 19 April 2017, ৬ বৈশাখ ১৪২৩, ২১ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাজাপুরে গৃহবধূকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ

রাজাপুর (ঝালকাঠি) সংবাদদাতা : ঝালকাঠির রাজাপুরে ছনিয়া আক্তার (২২) নামে সন্তানের জননীকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার মঠবাড়ি ইউনিয়নের পুকুরিজানা গ্রামের আকতার আলী মৃধার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ শনিবার সকালে পুলিশ ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়ে দিয়েছে। ছনিয়ার বাবা ফারুক হোসেন অভিযোগ করে জানান, শুক্রবার গভীর রাতে ছনিয়াকে তার স্বামী সুমন মৃধা ও তাদের লোকজন মিলে মারধর করার একপর্যায়ে তার মৃত্যু হয়। পরে ঘরের পিছনের নতুন পাকের ঘরের চৌকাঠের সাথে ওড়না লাগিয়ে তাকে ঝুলিয়ে রাখা হয়। যেখানে তাকে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে, সেখানে পায়ের নিচেই চৌকাঠ এবং হাতের কাছেই খুটি রয়েছে, এছাড়া মুখও স্বাভাবিক এসব কারণেই বোঝা যায় যে তাকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। ছনিয়ার স্বজনরা জানান, ৪ বছর আগে উপজেলার মঠবাড়ি ইউনিয়নের পুকুরিজানা গ্রামের আকতার আলী মৃধার ছেলে সুমন মৃধার সাথে ছনিয়ার বিয়ে হয়। ১১ মাস বয়সের ১টি কন্যা সন্তানও আছে তাদের। বিদেশে যাওয়ার জন্য ছনিয়ার পরিবারের কাছে সুমন ২ লাখ টাকা দাবি করে আসছিলো। এ নিয়ে ছনিয়ার স্বামী, শাশুড়ি ও ননদের সাথে প্রায়ই ঝগড়া-বিবাদ হত ছনিয়ার। উভয় পক্ষ মিলে স্থানীয়দের সহায়তায় আবার মীমাংসাও হয়েছে অনেক বার। শেষ ভাব ঝগড়া-বিবাদ হলে ছনিয়া বাপের বাড়ি উত্তমপুরে চলে আসে। গত তিন দিন আগে সুমন মৃধা ছনিয়ার বাড়ি থেকে ছনিয়াকে নিয়ে আসে। রাজাপুর থানার ওসি শেখ মুনীর উল গিয়াস জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে হত্যা নাকি আত্মহত্যা সেটি এখনই বলা যাচ্ছে না, অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ