ঢাকা, বুধবার 19 April 2017, ৬ বৈশাখ ১৪২৩, ২১ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মালিক শ্রমিকের স্বার্থপরিপন্থী আইনের সংশোধন ও ওভার লোড নিয়ন্ত্রণের নামে স্কেলে চাঁদাবাজি বন্ধ করতে হবে

চট্টগ্রাম অফিস: সম্প্রতি মন্ত্রী সভায় পাসকৃত সড়ক পরিবহন আইন ২০১৭ এর পণ্যপরিবহন মালিক শ্রমিকের স্বার্থপরিপন্থী আইনের সংশোধন ও ওভার লোড নিয়ন্ত্রণের নামে স্কেলে চাঁদাবাজী হয়রানী বন্ধসহ পণ্য পরিবহনের ৯ দফা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে গত রোববার সকাল ১১ টায় বৃহত্তর চট্টগ্রাম পণ্য পরিবহন মালিক ফেডারেশনের উদ্যোগে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সাংবাদিক সম্মেলনে সংগঠনের পক্ষ থেকে বলা হয়, সম্প্রতি সড়ক পরিবহণ আইন ২০১৭ এর খসড়ায় আমরা  জটিলতা দেখতে পাচ্ছি। যে দেশে ড্রাইভারের একটা বৃহৎ অংশের কাছে লাইসেন্স নেই, সে দেশে আবারর হেলপারের লাইসেন্স থাকতে হবে, তাও আবার অষ্টম শ্রেণী, পঞ্চম শ্রেণী পাস হতে হবে।
দূর্ঘটনা জনিত মৃত্য অপরাধের যে শাস্তি মৃত্যুদ- দেওয়া হয়েছে। এমনকি মালিকের সর্বোচ্চ ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা। আমাদের জোর দাবী এই আইনের সংশোধন করা না হলে পরিবহণ শিল্প হুমকীর সম্মুখীন হবে। পক্ষান্তরে দেশ ও পরিবহন জগত শ্রমিক সংকটে পড়বে।
গত ২৬/০৯/২০১৬ হইতে ৩০/০৯/২০১৬ পর্যন্ত আমাদের প্রাইমমুভার ট্রেইলার মালিক শ্রমিক ভাইদের কর্ম বিরতির সময়, মাননীয় যোগাযোগমন্ত্রীর নির্দেশে চট্টগ্রাম পুলিশ কমিশনার মহোদয়ের হস্তক্ষেপে প্রাইমমুভারের  স্কেলে ওজন সীমা দেয়া হয়েছিল ৪২ টন এবং ট্রাক কাভার্ডভ্যানে ২২ টন। যা আপনাদের সবারই জানা, পরবর্তী দুই মাসের মধ্যেই স্কেলে তা ৩২ ও ১৫ টন ধরে জরিমানা নেয়া শুরু করল। আমাদের বলা হয়েছিল দেশের যেকোন একটি স্কেলে ১ বার ওজন করলে পরবর্তী যে কোন স্কেলে ঐ রশিদ দেখালে আর স্কেল করতে হবে না, কিন্তু না, বর্তমানে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে একবার দারোগাহাট স্কেলে টাকা দিলে আবারও দাউদকান্দি স্কেলে দিতে হয়, এরপর দেশের বিভিন্ন জেলায়।
বক্তারা বলেন,আমাদের ৯ দফা দাবী সমূহ হচ্ছে (১) সম্প্রতি মন্ত্রীসভায় পাশকৃত সড়ক পরিবহন আইন-২০১৭ এর পন্য পরিবহন মালিক শ্রমিকের স্বার্থ পরিপন্থী আইনের ধারা সমূহ অভিলম্বে সংশোধন করতে হবে।
(২) সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক ঘোষিত কাভার্ডভ্যান প্রাইমমুভারের সিটি কর্পোরেশন কর ৫০০ টাকার স্থলে বর্ধিত ১০,০০০/- টাকা প্রত্যাহার করিতে হবে। সেই সাথে দেশের অন্যান্য জেলার ন্যায় চট্টগ্রামেও সিটিকর্পোরেশনের কর ব্যতিত ডকুমেন্ট হালনাগাদ করতে হবে।
(৩) পূর্বের সিদ্ধান্তকৃত প্রাইমমুভার ট্রেইলার একই রেজিষ্ট্রেশনের আওতায় এক রেজিস্ট্রেশন ও একটি নম্বর করতে হবে। (৪) ওভার লোড নিয়ন্ত্রণ করে “পরিবহন শিল্পকে বাঁচান” তবে ওভার লোড নিয়ন্ত্রণের নামে স্কেলে চাঁদাবাজি, হয়রানি বন্ধ করতে হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ