ঢাকা, বুধবার 19 April 2017, ৬ বৈশাখ ১৪২৩, ২১ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাজধানীতে দুই নারী খুন

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর ইব্রাহিমপুরে এক নারীকে ছুরির আঘাতে হত্যা করা হয়েছে। নিহত রোজী বেগম (২৬) ইব্রাহিমপুর এলাকার একটি বাড়ির নিচতলায় দুই শিশু কন্যাকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন। তার স্বামী প্রবাসী।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ইব্রাহিমপুরে ওই ভাড়াবাসার বাথরুম থেকে পুলিশ ওই নারীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করেছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান। তিনি বলেন, উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে রোজী বেগমকে হত্যা করা হয়েছে।
সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টার মধ্যে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিক অনুসন্ধানে ধারণার কথা জানিয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তা মাসুদুর বলেন, “কেন হত্যাকা- ঘটানো হয়েছে এবং কে ঘটিয়েছে, তা চিহ্নিত করা হয়েছে। হত্যাকারীকে দ্রুত গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।” বাসা থেকে নিহত নারীর দুই শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, “শিশু দুটির বয়স ৭ এবং ৪। তারা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।” নিহতের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।
পুলিশ জানায়, ইব্রাহীমপুর বাজার এলাকার ৮৩৯ নম্বর বাড়ির নিচতলা থেকে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়। তার স্বামী সৌদি আরবে থাকেন।
এদিকে , উত্তরার একটি আবাসিক হোটেল থেকে এক নারীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার সকালে আব্দুল্লাহপুরের নীলা হোটেলে ‘পুষ্পা নামে নিবন্ধিত’ ওই নারীর লাশ পাওয়া যায় বলে ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মো. শাহেন শাহ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, “রাত ১২টা থেকে ভোর ৩টার মধ্যে ওই নারীকে হত্যা করা হয়েছে। গলায় ক্ষত ছাড়া শরীরে অন্য কোনো আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়নি।”
 হোটেলটির ব্যবস্থাপকের উদ্ধৃতি দিয়ে শাহেন শাহ বলেন, সোমবার রাত ১০টায় স্বামী-স্ত্রী-সন্তান পরিচয় দিয়ে ওই নারীর সঙ্গে এক পুরুষ ও এক শিশু হোটেলটির চতুর্থ তলার ৪১৪ নম্বর কক্ষে ওঠে। খাতায় ওই নারীর নাম পুষ্পা (৩০) ও পুরুষটির নাম দুর্জয় (৪০) লেখা রয়েছে। “তবে এই নামগুলো সঠিক নয়।” ওই নারীর সঙ্গে হোটেলে ওঠা পুরুষ ও শিশুটিকে পুলিশ খুঁজছে বলে জানান এই কর্মকর্তা। লাশটি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।
থানার ওসি আলী হোসেন জানান, সকালে রুম পরিষ্কার করতে গিয়ে লাশ দেখতে পান পরিচ্ছন্ন কর্মীরা। পরে পুলিশ গিয়ে তা উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে- স্বামী পরিচয়দানকারী দুর্জয় ওই নারীকে কোনো কারণে গলাকেটে হত্যার পর পালিয়ে গেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ