ঢাকা, শনিবার 22 April 2017, ৯ বৈশাখ ১৪২৩, ২৪ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আলিয়া-কউমি একই মাদ্রাসা শিক্ষানীতি ও কর্তৃপক্ষের আওতায় আনতে হবে

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব চত্বরে আয়োজিত আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত সমন্বয় কমিটির মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে দেশে মাদ্রাসা শিক্ষানীতিকে সরকারিভাবে বিভক্ত করে মুসলমানদেরকে বিভেদের মধ্যে ঠেলে না দিয়ে আলিয়া এবং কউমি নির্বিশেষে সব মাদ্রাসা শিক্ষার জন্য একই নীতি, একই সিলেবাস ও কারিকুলামভুক্ত করে একই শিক্ষাবোর্ড ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে নিয়ে আসার দাবি জানানো হয়। নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশে এই নীতি কায়েম হলে ওহাবী-সুন্নি বিতর্ক যেমন কমে আসবে, তেমনি ইসলামের নামে উগ্রবাদ-সন্ত্রাসবাদ ও হালে পানি পাবেনা, বিধায় দেশ সমূহ বিপদ থেকে রক্ষা পাবে। সরকার সুন্নি ও কউমী আলেমদের নিয়ে সে সিলেবাস ও নীতিমালা তৈরী করলে তাতে কারো কোন পক্ষের  আপত্তি করার সুযোগ থাকবেনা। নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার হেফাজতের পাশবিক শক্তিকে মূল্যায়ন করতে গিয়ে বিনাশর্ত ও নিয়ন্ত্রণ ব্যতিরেকে এবং কোন ধরনের সংস্কার না করে তাদের ইতোপূর্বের সব বৈশিষ্ট্য বজায় রেখে একবারে মাস্টার্স মানের স্বীকৃতি দিয়ে দিয়েছে। যা রীতিমতো হাস্যকর এবং অবিবেচনাপ্রসূত। সরকারের এ নীতি সতের বছরের নিরবচ্ছিন্ন কঠিন শিক্ষাজীবন পাড়ি দিয়ে এবং অনেকগুলো পাবলিক পরীক্ষার কঠিন বৈতরণী উত্তীর্ণ হয়ে একই সনদ অর্জন করা বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ ও আলিয়া মাদ্রাসার ছাত্রদের জন্য অপমানজনকও বটে। শুধু তাই নয়, সাধারণ ও আলিয়ার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক হবার জন্যও সরকারি কঠিন নিবন্ধন পরীক্ষার মুখোমুখি হতে হয়-যা কউমী-ওহাবীদের জন্য নির্ধারণ করা হয়নি। যা এক ভয়াবহ বৈষম্য এবং অশুভ আঁতাত ছাড়া আর কিছুই নয়।
 নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সরকার একদিকে ঐতিহ্যবাহী আলিয়া সিলেবাসের উপর খড়গ চালিয়ে একে সাধারণ শিক্ষা বানিয়ে নিচ্ছে নাস্তিকদের খুশি করতে, আর অপরদিকে ওহাবী-কউমীদের সিলেবাস ও নীতিতে কোনপ্রকার হস্তক্ষেপ ছাড়াই তাদের সর্বোচ্চ সনদ দিয়ে, মূলত আলিয়া মাদ্রাসামুখি দ্বীনী শিক্ষা পিপাসুদের সুকৌশলে কউমী মাদ্রাসার সহজ সনদ অর্জনের দিকে চলে যেতে উৎসাহী করছে। যা শান্তিপ্রিয় ও উদারপন্থী সুন্নি সূফিবাদী মুসলমানদের উগ্রওহাবীবাদের দিকে নিয়ে যাবার এক মহাচক্রান্ত। এ চক্রান্ত রুখে দিতে এবং সুন্নিয়তের ঐতিহ্য রক্ষা করতে দেশের সকল দরবার-দরগাহ, আলিয়া মাদ্রাসা ও সচেতন জনগোষ্ঠীর ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে মাঠে নামার আহবান জানান নেতৃবৃন্দ।
 কউমি সনদের অযৌক্তিক সরকারি স্বীকৃতি বাতিলের দাবি ও আলীয়া মাদ্রাসা সংকোচন নীতির প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত সমন্বয় কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য মুফতি সৈয়্যদ অছিয়র রহমান। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন আহলে সুন্নাত সমন্বয় কমিটির কেন্দ্রিয় প্রধান সমন্বয়ক আল্লামা এম এ মতিন। প্রধান বক্তা ছিলেন, কেন্দ্রিয় সদস্য সচিব এড. মোছাহেব উদ্দীন বখতিয়ার আলকাদেরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চেয়ারম্যান মুফাসসির আল্লামা এম এ মান্নান,   সৈয়্যদ মছিহুদ্দৌলা, ড. জালালুদ্দীন আল আজহারী, অধ্যক্ষ আল্লামা তৈয়্যব আলী, অধ্যক্ষ আবুল ফারাহ ফরিদ উদ্দীন, পীরজাদা তাহসিন মোজাদ্দেদী, মাওলানা রেজাউল করিম তালুকদার, অধ্যক্ষ খাজা মোবারক আলী, মুহাদ্দিস ইউনুচ তৈয়্যবী, মাওলানা নুরুল ইসলাম জেহাদী প্রমুখ।  প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ