ঢাকা, শনিবার 22 April 2017, ৯ বৈশাখ ১৪২৩, ২৪ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রূপসা উপজেলার বিভিন্ন সড়ক-সেতু যান চলাচলের অনুপযোগী

খুলনা অফিস : খুলনার রূপসা উপজেলার বিভিন্ন সড়ক ও বাইপাস সড়ক কর্তৃপক্ষের অবহেলা এবং ঠিকাদারদের গাফলতির কারণে জনসাধারণ, শিক্ষার্থীসহ যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এ সব সড়ক ব্যবহারকারীরা জীবন জীবিকা এবং শিক্ষা গ্রহণের তাগিদে বাধ্য হয়ে কষ্ট ভোগ করে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে।
রূপসা উপজেলার অধিকাংশ সড়ক স্থানীয় সরকার  প্রকৌশল বিভাগ এবং ২/১টি সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্তৃত্বাধীন রয়েছে। তার মধ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতাধীন সড়কগুলোর অধিকাংশ বর্তমানে কার্যাদেশের অপেক্ষাধীন, বরাদ্দ প্রাপ্তির অপেক্ষা এবং ২/১টি সড়ক ঠিকাদারদের কার্য শেষ করার অপেক্ষায় রয়েছে। উপজেলার সিংহভাগ জনসাধারণের ব্যবহারকারী রূপসা-বাগেরহাট পুরাতন সড়কের পূর্ব রূপসা থেকে স্বল্পবাহিরদিয়া চারা বটতলা পর্যন্ত উপজেলাধীন সড়কটি অতীব গুরুত্বপূর্ণ হলেও এর দুই-তৃতীয়াংশ বর্তমানে মরণ ফাঁদে পরিণত হওয়ার উপক্রম হয়েছে। সড়ক ও জনপথ বিভাগের কাছে এ সড়কটির আদৌ কোন গুরুত্ব আছে কিনা তা নিয়ে জনমনে সন্দেহ রয়েছে। বিশ্ব রোড করার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সড়কটি প্রশস্তকরণ ও বাইপাস সড়ক হিসেবে তৈরী করার চিন্তায় জন গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ থেকে সড়ক ও জনপথ বিভাগ কর্তৃপক্ষ গ্রহণ করে। অথচ এ পরিকল্পনাটি পরবর্তীতে পরিত্যক্ত ঘোষিত হলেও সড়কটির বেহাল দশা যেন আর কোন দিন শেষ হয়নি। অথচ দুই বছর অন্তর অন্তর সড়কটি যেন তেন ভাবে  মেরামত করে কর্তৃপক্ষ তাদের দায়িত্ব শেষ করে। বলে অভিযোগ। বর্তমানে সড়কটির দুর্দশা দেখে দুর্ভোগপ্রাপ্তরা এ ধরনের সড়ক উক্ত বিভাগের আওতায় আদৌ আছে কিনা তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ পোষণ করেন। এ ছাড়া উপজেলার ভাবানীপুর থেকে আলাইপুর পর্যন্ত সড়কটি ইতিমধ্যে প্রচুর খাদের সৃষ্টি হওয়ায় তা জনসাধারণের মারাত্মক কষ্টের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
এছাড়া উপজেলার পাথরঘাটা এলাকার প্রধান ইটের সলিং সড়কটি ইতিমধ্যে ভারী যানবাহন চলাচলের কারণে সম্পূর্ণ অনুপযোগী রাস্তায় পরিণত হয়েছে। অবশ্য এ রাস্তটি সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে টেন্ডারের অপেক্ষায় রয়েছে। আলাইপুর ২ নং সেতু থেকে বাজার পর্যন্ত আর সিসি ঢালাই বিশিষ্ট সড়কটির আংশিক কাজ ঠিকাদারের গাফিলতির কারণে জনসাধারণ ও সকল শ্রেণীর যানবাহন চালকদের মারাত্মক কষ্ট স্বীকার করে দীর্ঘ পথ ঘুরে ১নং সেতু পার হতে হচ্ছে।
অপরদিকে নতুনহাট থেকে তিলকগামী বাইপাস সড়কটির মাঝামাঝি অংশে খাদের সৃষ্টি হওয়ায় তা ইটের খোয়া দিয়ে আপাতত মেরামত করা হয়েছে এবং অনেক স্থানে সড়কটি দেবে গিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
এছাড়াও জাবুসা পশ্চিমপাড়া এলাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি কার্পেটিং এর অপেক্ষায় দীর্ঘদিন যাবৎ খোয়া বিছিয়ে রাখায় জনসাধারণ শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষের মারাত্মক দুর্দশার কারণ হয়ে আছে। এটিও ঠিকাদারের অবহেলার কারণে হয়েছে বলে জনসাধারণের অভিযোগ। জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলি অবিলম্বে জনস্বার্থে সংস্কার  এবং চলমান কাজ সমাপ্ত করা একান্ত প্রয়োজন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ