ঢাকা, সোমবার 24 September 2018, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ১৩ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

২৫ বছর ধরে পাতা খেয়ে বেঁচে আছেন মেহমুদ বাট

অনলাইন ডেস্ক: ২৫ বছর আগে হাতে একটা পয়সাও ছিল না। নিজের জন্য খাবার জোটানো অসম্ভব হয়ে পড়ায় গাছের পাতা আর ডালপালা খেতে শুরু করেন। দেখেন, দিব্যি রয়েছেন, শরীরও খারাপ হয় না। তখন থেকে গাছের ডালপালা আর পাতাই পাকিস্তানের পঞ্জাব প্রদেশের বাসিন্দা মেহমুদ বাটের রোজকার খাবার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

মেহমুদের বাড়ি পাক পঞ্জাবের গুজরানওয়ালায়। তিনি জানিয়েছেন, প্রচণ্ড দারিদ্র্যের সময় ভিক্ষে করা এড়ানোর জন্য শুরু করেন পাতা খাওয়া। এখন রোজগার বেড়েছে। কিন্তু খাদ্যাভ্যাস বদলায়নি।

নিজের গাধায় টানা গাড়ি চালিয়ে জিনিসপত্র এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় পৌঁছে দেন মেহমুদ। রোজগার এখন ভালই করেন, প্রতিদিন ৬০০ টাকা করে। ইচ্ছে করলেই রান্না খাবার খেতে পারেন কিন্তু অন্য কিছু মুখে রোচে না তাঁর। তাজা পাতা আর গাছের ডালই তাঁর রোজের খাবার।

বট, শিশু আর করঞ্জ গাছের ডাল, পাতা খেতে ভাল লাগে বলে তিনি জানিয়েছেন।

মেহমুদের প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, কখনও ডাক্তার দেখানোর দরকার পড়ে না তাঁর। সকলে অবাক, স্রেফ ডাল-পাতা খেয়ে কী করে একজন এতদিন সব রোগ এড়িয়ে রয়েছে। যখন তখন নাকি রাস্তার ধারে নিজের গাড়ি থামিয়ে দেন মেহমুদ, শুরু করেন পাতা খাওয়া!

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ