ঢাকা, রোববার 23 April 2017, ১০ বৈশাখ ১৪২৩, ২৫ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

হকিতে প্লে-অফ ম্যাচ নাটক!

স্পোর্টস রিপোর্টার : লিগ শেষ হওয়ার পাঁচ মাস পর প্লে-অফ ম্যাচের আয়োজন করে চমক দেখালো হকি ফেডারেশন! কিন্তু তাদের এই সিদ্ধান্তে সাড়া দেয়নি ভিক্টোরিয়া। তারা খেলোয়াড় সংকটের কারণে মাঠে উপস্থিত হতে পারেনি। ফলে প্রথম বিভাগ লিগ চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ পুলিশ।  উল্লেখ্য, গত বছর ২৯ নভেম্বর শেষ হওয়া প্রথম বিভাগ হকি লিগের ঝুলে থাকা শিরোপা নির্ধারনী প্লে-অফ ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল শনিবার। প্রায় ৫ মাস পর আয়োজন করা সে ম্যাচটি মাঠে গড়ায়নি। পুলিশ অ্যাথলেটিক ক্লাব মাঠে এসেছিল, গড়হাজির ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব। ওয়াক ওভার পেয়ে প্রথম বিভাগ চ্যাম্পিয়ন পুলিশ। ভিক্টোরিয়া রানার্সআপ। দুই ক্লাবই প্রিমিয়ার লিগে উঠেছে। মাঠে ট্রফি দেয়াও হয়েছে। ভিক্টোরিয়া না খেললেও ক্লাবটির পক্ষ থেকে ট্রফি নিয়ে গেছে। লিগ শেষে দুই দলের পয়েন্ট সমান হওয়ায় বাইলজ অনুযায়ী চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ নির্ধারণের জন্য ব্যবস্থা ছিল প্লে-অফের। কিন্তু দুই ক্লাবই আবদার করেছিল তাদের যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন করার। কোনো দলই প্লে-অফ ম্যাচটি খেলতে চায়নি। কিন্তু হকি ফেডারেশন ছিল সিদ্ধান্তে অটল। হকি ফেডারেশনের সর্বশেষ নির্বাহী কমিটির সভায় প্লে-অফ ম্যাচ খেলতেই হবে-এমন সিদ্ধান্তের পর দুই ক্লাবকে জানিয়ে দিয়েছিল লিগ কমিটি। লিগ কমিটির সম্পাদক কামরুল ইসলাম কিসমত বলেছেন, ‘তারিখ ঠিক করার পর ভিক্টোরিয়া চিঠি দিয়ে জানিয়েছিল তারা প্লে-অফ ম্যাচ খেলতে পারবে না। কারণ হিসেবে তারা উল্লেখ করেছিল খেলোয়াড় সংকটের কথা। তাই শনিবার পুলিশ দল উপস্থিত হওয়ায় তাদের ওয়াক ওভার দিয়ে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়েছে।’
নির্বাহী কমিটির নির্দেশ অমান্য করে ম্যাচ না খেলা ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবের বিরুদ্ধে কি কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে? ‘আসলে এটাতো লিগের ম্যাচ না। প্লে-অফ ম্যাচটি শুধু চ্যাম্পিয়নশিপ নির্ধারণের জন্য। তাই এখানে কোনো দল ওয়াক ওভার দিলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়ে কিছু উল্লেখ নেই বাইলজে। যদি দুই দলই অনুপস্থিত থাকতো তাহলে নির্বাহী কমিটি সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতো’-বলে জানালেন লিগ কমিটির সম্পাদক।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ