ঢাকা, রোববার 23 April 2017, ১০ বৈশাখ ১৪২৩, ২৫ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মে মাসে খুলনায় সাড়ে চার  লাখ স্মার্টকার্ড বিতরণ

 

খুলনা অফিস : আগামী মাসের শেষের দিকে খুলনা মহানগরীতে সাড়ে চার লাখ ভোটারের স্মার্টকার্ড বিতরণ করবে নির্বাচন কমিশন। গত ৯ এপ্রিল স্মার্টকার্ড নির্বাচন অফিসে আনা হয়েছে। তবে বিতরণের সরঞ্জাম না পৌঁছানোই খুলনাবাসীর মাঝে বিতরণ বিলম্বের মূল কারণ।

খুলনা জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, সর্বশেষ গত ৯ এপ্রিল খুলনায় পৌঁছেছে ৪ লাখ ৫২ হাজার স্মার্টকার্ড। নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ভোটারদের প্রথমে স্মার্টকার্ড বিতরণ করার পর উপজেলা পর্যায়ে বিতরণ করা হবে। স্মার্টকার্ড প্রিন্ট হয়ে খুলনায় পৌঁছালেও আসেনি কার্ড বিতরণ কার্যক্রমের জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম। তবে আগামী মাসে স্মার্টকার্ড বিতরণের প্রস্ততি নিয়ে কাজ করছে জেলা নির্বাচন অফিস। সূত্র আরও জানায়, খুলনায় জেলায় প্রায় সাড়ে ১৬ লাখ স্মার্টকার্ড বিতরণ করা হবে। খুলনায় ২০১৩ সালের পূর্বে যারা ছবিসহ ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন শুধু তারাই স্মার্টকার্ড পাবেন। সে হিসেবে মহানগরী এলাকার ৪ লাখ ৫৭ হাজার ৩৪৪ ভোটারের তথ্যাদি পাঠানো হয়। তবে তথ্যগত ভুল থাকায় নগরীর সোনাডাঙ্গা ও দৌলতপুর থানার কয়েকজনের স্মার্টকার্ড হয়নি। সেগুলোও উপজেলা পর্যায়ের স্মার্টকার্ডের সাথে চলে আসবে বলে জানিয়েছেন সূত্রটি। সূত্রে জানা গেছে, স্মার্টকার্ড বিতরণে ছোট ছোট টীম কাজ করবে। ভোটারদের ১০টি আঙুলের ছাপ এবং চোখের কন্টাক্ট আধুনিক যন্ত্রের মাধ্যমে সংরক্ষণ করবে নির্বাচন কমিশন। এরপর মূল জাতীয় পরিচয় পত্রটি পাঞ্চ (ছিদ্র করা) করবে। জাতীয় পরিচয়পত্র ও স্মার্টকার্ড সাথে সাথেই দেয়া হবে ভোটারদের হাতে।

খুলনা জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইউনুস আলী জানান, আগামী মে মাসে নগরবাসীকে স্মার্টকার্ড বিতরণ করতে পারবো, সে হিসাবেই প্রস্তুতি চলছে। পরে পর্যায়ক্রমে উপজেলা পর্যায়ে স্মার্টকার্ড বিতরণ করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ