ঢাকা, রোববার 23 April 2017, ১০ বৈশাখ ১৪২৩, ২৫ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ধর্ষিত কিশোরীর আত্মহত্যার চেষ্টা

বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা : সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের শিকার এক কিশোরী লম্পট ধর্ষকের বাড়িতে দু’দিন ধরে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করছে। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে গ্রাম্য মাতব্বররা বিয়ের প্রস্তুতি নিলেও উভয়ের বয়স কম হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের হস্তক্ষেপে বিয়ে পন্ড হয়ে যায়। এদিকে বিয়ে না করতে পেরে শুক্রবার রাতে আত্মহত্যার চেষ্টা করে ঐ কিশোরী।
স্থানীয়রা জানায়, বেলকুচি উপজেলার দৌলতপুর সামান্যপাড়ার মৃত মজিবর খাঁনের মেয়ে কিশোরী (১৬) মেয়ের সঙ্গে প্রতিবেশী আব্দুল ফরিদের ছেলে ধুকুরিয়াবেড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্র লম্পট আব্দুর রহিমের (১৫) প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তাদের বাড়ি পাশাপাশি হওয়ায় অবাধে যাতায়াত ছিলো উভয়ের বাড়িতে। এই সুযোগে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ঘনিষ্টতার এক পর্যায়ে বিয়ের প্রলোভনে দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে লম্পট রহিম। বিষয়টি জানাজানি হলে বৃহস্পতিবার সকালে ওই কিশোরী বিয়ের দাবিতে লম্পট রহিমের বাড়িতে অবস্থান নেয়। পরে শুক্রবার রাতে গ্রাম্য সালিশে উভয়ের মধ্যে বিয়ে দেওয়ার কথা পাকাপোক্ত হয়। এদিকে বাল্য বিয়ে সংগঠিত হচ্ছে এমন খবর পেয়ে ইউএনও মোহাম্মদ সাইফুল হাসান ও থানার ওসি তদন্ত লাইছুর রহমান সংগীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল গিয়ে উভয়ের বিয়ের উপযুক্ত বয়স না হওয়ায় বিয়ে বন্ধ করে দেন।
এ বিষয়ে ওই কিশোরীর মা লালভানু জানায়, প্রায় ৪বছর পূর্বে স্বামী মারা যাবার পর থেকে অভাবের সংসারে ৬ সন্তান নিয়ে খুব কষ্টে দিনাতিপাত করছি। আমি অন্যের বাড়িতে কাজ করি। আমার অনুপস্থিতে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে আমার মেয়ের সাথে অবৈধ অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলে লম্পট রহিম। বিষয়টি জানাজানি হলে মাতব্বররা বিয়ের ব্যবস্থা করে। কিন্তু বিয়ের বয়স হয়নি বলে বিয়ে বন্ধ হয়েছে, এমন খবর জানতে পেরে আমার মেয়ে রাতে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। সারা রাত জেগে মেয়েকে পাহাড়া দিয়েছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ