ঢাকা, মঙ্গলবার 25 April 2017, ১২ বৈশাখ ১৪২৩, ২৭ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ইসলামী সমাজ ব্যবস্থা চালু করার জন্য মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ (স.) এর মিরাজের ১৪ দফার আলোকে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে

খুলনা অফিস : বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর খুলনা মহানগরী আমীর মাওলানা আবুল কালাম আজাদ বলেছেন, মিরাজুন্নবী (স.)-এর ঘটনা একটি শ্রেষ্ঠ মুজিযা। এটি মানব ইতিহাসে চাঞ্চল্যকর ও যুগান্তকারী ঘটনা। ইসলামের দ্বিতীয় রুকন নামায এই রাতে ফরয হয়। মিরাজের ঘটনার উপর আস্থা ও বিশ্বাস স্থাপন করা মজবুত ঈমানের পরিচয়। এই পবিত্র মিরাজের ঘটনার মাধ্যমে আল্লাহ রসুল (স.) কে দুনিয়ায় ইসলামী সমাজ প্রতিষ্ঠার জন্য ১৪ দফা পেশ করেছেন। তিনি বলেন, জীবনের সর্বক্ষেত্রে একমাত্র আল্লাহকে ইলাহ হিসেবে মানতে হবে, তার সাতে কোন শিরক করা যাবে না। পিতা-মাতার সেবা ও তাদের সাথে সদাচরণ করতে হবে। নিকটাত্মীয়, মিসকিন ও মুসাফিরের হক আদায় করতে হবে, সম্পদ অপচয় করা যাবে না, মানুষের সাথে ভাল ব্যবহার করতে হবে। সম্পদ ব্যয়ে ভারসাম্য রক্ষা করতে হবে। খাদ্যাভাবের ভয়ে সন্তান হত্যা করা যাবে না। অশ্লীলতা ও জ্বিনা ব্যভিচার করা যাবে না। নিরপরাধ কোন মানব হত্যা করা যাবে না। এতিম অনার্থদের সম্পদ আত্মসাৎ করা যাবে না। ওয়াদা রক্ষা করতে হবে। পণ্যদ্রব্য কেনাবেচার সময় ওজনে কম না দেয়া, অনুমান বা অপবাদ না দেয়া, অহংকারী ও দাম্ভিক না হওয়া। 

তিনি আরো বলেন, বর্তমান ইসলাম বিরোধী এই সমাজকে পরিবর্তন করে ইসলামী সমাজ ব্যবস্থা চালু করার জন্য মুহাম্মদুর রসুল (স.) এর মিরাজের ১৪ দফার আলোকে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে আসতে হবে। গতকাল সোমবার সকালে পবিত্র মিরাজুন্নবী (স:) উপলক্ষে খুলনা মহানগরী জামায়াতের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ আহবান জানান। এ সময় বক্তব্য রাখেন মহানগরী সহকারি সেক্রেটারি মুহাম্মদ শাহ আলম, এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসাইন হেলাল, মোস্তাফিজুর রহমান টিংকু, মাওলানা ওয়ালি উল্লাহ প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ