ঢাকা, মঙ্গলবার 25 April 2017, ১২ বৈশাখ ১৪২৩, ২৭ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রোমাঞ্চকর ক্লাসিকো জিতে লীগের শীর্ষে বার্সেলোনা

কাতালান ক্লাবের জার্সিতে ৫০০ গোল পূর্ণ করা পর মেসি -ইন্টারনেট

স্পোর্টস ডেস্ক : ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে অলিখিত লড়াইয়ে অনেক এগিয়ে থেকে জিতলেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টিনার এই তারকা ফরোয়ার্ডের চোখ-ধাঁধানো নৈপুণ্যে রিয়াল মাদ্রিদের মাঠে অবিস্মরণীয় এক জয়ে লা লিগার শিরোপা লড়াই জমিয়ে তুললো বার্সেলোনাও।সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে রোববার রাতে রোমাঞ্চকর এই এল ক্লাসিকো ৩-২ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। লা লিগার শেষ দিকে এসে দুই দলের পয়েন্টই এখন ৭৫। তবে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে শীর্ষে উঠলো এক ম্যাচ বেশি খেলা কাতালান ক্লাবটি। প্রথমার্ধে কাসেমিরোর গোলে পিছিয়ে পড়ার পর সমতা ফেরাতে দেরি করেননি ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দুর্দান্ত খেলা মেসি। দ্বিতীয়ার্ধে ইভান রাকিতিচের দর্শনীয় গোলে অতিথিরা এগিয়ে যাওয়ার পর সমতা ফিরিয়েছিলেন হামেস রদ্রিগেস। যোগ করা সময়ে দুর্দান্ত শটে মূল্যবান ৩ পয়েন্ট এনে দেন মেসি। একই সঙ্গে স্পর্শ করেন বার্সেলোনার জার্সিতে ৫০০তম গোলের অনন্য মাইলফলক।
২৮তম মিনিটে ম্যাচের প্রথম কর্নার থেকেই গোল পায় স্বাগতিকরা। বল পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেনি বার্সেলোনা। ডি-বক্সের বাইরে থেকে মার্সেলোর উঁচু করে বাড়ানো বলে সের্হিও রামোসের ভলি পোস্টে লেগে ফিরলে অপর পোস্টের পাশ দিয়ে তা ফাঁকা জালে পাঠান কাসেমিরো।ম্যাচের ২০ মিনিটের দিকে ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্সেলোর কনুইয়ের আঘাতে মুখ থেকে রক্ত বের হওয়ার পর মেসির দুর্দান্ত পায়ের কাজে পাঁচ মিনিটের মধ্যেই সমতায় ফিরে বার্সেলোনা। সের্হিও বুসকেতসের বাড়ানো বল থেকে রাকিতিচের পাস বাঁ পায়ে ধরে ডি-বক্সে ঢুকে ডান পায়ে কারভাহালের কাছ থেকে বল সরিয়ে আবার বাঁ পায়ে নাভাসের হাতের নীচ দিয়ে জালে জড়িয়ে দেন মেসি। এরই সঙ্গে লা লিগায় হওয়া ক্লাসিকোতে সর্বোচ্চ ১৫টি গোল করে রিয়াল মাদ্রিদের কিংবদন্তি আলফ্রেদো দি স্তেফানোকে ছাড়িয়ে যান আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই চেপে বসে রিয়াল। ৫৩তম মিনিটে মার্সেলোর ক্রসে খুব কাছ থেকে নেওয়া বেনজেমার হেড দারণ রিফ্লেক্স দেখিয়ে সেভ করেন টের স্টেগেন। ৫৯তম মিনিটে কর্নার থেকে জেরার্দ পিকের জোরালো হেড গোললাইনে ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে আবারও রিয়ালের ত্রাতা নাভাস।
৭৩ তম মিনিটে রাকিতিচকে আর ঠেকাতে পারেননি। পোস্ট দিয়ে বল জালে পাঠান ক্রোয়েশিয়ার এই মিডফিল্ডার।চার মিনিট পরই অহেতুক মেসিকে ফাউল করে অধিনায়ক রামোস লালকার্ড দেখলে ১০ জনের দলে পরিণত হয় রিয়াল। ৮৬তম মিনিটে মার্সেলোর ক্রস থেকে হামেস রদ্রিগেসের গোলে সমতা ফেরায় রিয়াল। দুই মিনিট যোগ করা সময়ের শেষ মিনিটে জর্দি আলবার ক্রসে ডি-বক্সের একটু ভেতর থেকে বাঁকানো শটে নাভাসকে ফাঁকি দিয়ে ঠিকই এনে দেন অবিশ্বাস্য এক জয়।এবারের লা লিগার মেসির ৩১তম গোলটি বার্সেলোনার জার্সিতে সব মিলিয়ে ৫০০তম।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ