ঢাকা, মঙ্গলবার 25 April 2017, ১২ বৈশাখ ১৪২৩, ২৭ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ইয়াসিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের চারটি শ্রেণিকক্ষ ক্ষতিগ্রস্ত

খুলনা অফিস : ঘূর্ণিঝড় টর্নেডোর আঘাতে খুলনার দাকোপে ইয়াসিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের চারটি শ্রেণি কক্ষের টিনের ছাউনি (চাল) সম্পূর্ণ উপড়ে পড়ে তা দুমড়ে মুচকে বিধ্বস্ত হয়েছে। প্রতি কক্ষের ভিতরে বৃষ্টির পানিতে সয়লাবসহ টেবিল চেয়ার ভিজে একাকার হয়েছে। বিদ্যালয়টি দ্রুত সংস্কার করার দাবি  শিক্ষার্থী ও অভিভাবক মহলের।
স্থানীয় এলাকাবাসী ও উক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক প্রকাশ চন্দ্র বিশ্বাস জানান, গত ২০ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সন্ধা আনুমানিক ৭টায় মাত্র ১০ মিনিটের ঘূর্ণিঝড় টর্নেডোর আঘাতে খুলনার দাকোপ উপজেলার পানখালী ইউনিয়নের হোগলাবুনিয়া গ্রামে ইয়াসিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪টি শ্রেণী কক্ষের টিনের ছাউনি (চাল) সম্পূর্ণ উপড়ে পড়ে তা দুমড়ে মুচকে বিধ্বস্ত হয়েছে। একই সাথে ঘটনার দিন রাতে এবং সকালে প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে বিদ্যালয়টির শ্রেণী কক্ষে বৃষ্টির পানি জমে একাকারসহ সকল চেয়ার টেবিল ভিজে গেছে। জরুরি ভিত্তিতে এ বিদ্যাপীঠটি সংস্কার করা না হলে চলমান বৃষ্টি মওসুমে উক্ত বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণিতে অধ্যায়নরত প্রায় ২৫০ জন শিক্ষার্থীদের পাঠদান দেয়া সম্ভব হয়ে উঠবে না। বর্তমানে স্কুল ফান্ডে অর্থ না থাকায় এই মুহূর্তে বিদ্যালয়টি সংস্কার করাও সম্ভব হচ্ছে না।
একাধিক অভিভাবক জানান, এখন শুরু হয়েছে বর্ষা মওসুম, টর্নেডোর আঘাতে বিধ্বস্ত হওয়া এ ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠটি দ্রুত সংস্কার করা না হলে আমাদের ছেলে মেয়েরা শিক্ষকদের পাঠদান পাওয়া থেকে বঞ্চিত হবে।
এ বর্ষা মওসুমে কোন ভাবেই শিক্ষার্থীরা খোলা আকাশের নিচে শিক্ষকদের পাঠদান গ্রহণ করতে পারবে না। তাই এ বিদ্যালয়ের অসংখ্য মেধা শিক্ষার্থীদের উজ্জ্বল ভবিষৎ কামনায় ও তাদের উন্নত শিক্ষা জীবন লাভের জন্য বিদ্যালয়টি দ্রুত সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
স্থানীয় পানখালী ইউপি চেবয়ারম্যান শেখ আব্দুল কাদের বলেন, টর্নেডোর আঘাতে বিদ্যালয়টির ৪টি শ্রেণি কক্ষের টিনের ছাউনি চাল সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হওয়ায় ওই বিদ্যালয়টিতে এখন আর শিক্ষার্থীদের পাঠদানের জন্য তেমন কোন বিকল্প ব্যবস্থা নেই। বিদ্যালয়টি শ্রেণি কক্ষের ছাউনি দ্রুত সংস্কারের জন্য আমি স্থানীয় প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেছি। আশাকরা হচ্ছে বিধ্বস্ত হওয়া শ্রেণি কক্ষগুলি দ্রুত সংস্কার করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ