ঢাকা, শনিবার 29 April 2017, ১৬ বৈশাখ ১৪২৩, ০২ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

খুলনায় পুলিশের সাথে গুলীবিনিময়কালে সন্ত্রাসী  আব্দুর রহিম গুলীবিদ্ধ ॥ তিন পুলিশ আহত

খুলনা অফিস : খুলনায় পুলিশ-সন্ত্রাসী গুলীবিনিময়কালে আব্দুর রহিম (২৯) নামের এক সন্ত্রাসী দুই পায়ে গুলীবিদ্ধ হয়েছে। এ সময় একজন এসআই, একজন এএসআই ও একজন কনস্টেবল আহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার ভোরে নগরীর নিউ মার্কেট সংলগ্ন শিল্প ব্যাংকের পিছনে এ গোলাগুলীর ঘটনাটি ঘটে। 

খুলনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান জানান, সন্ত্রাসী আব্দুর রহিমকে গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে সে স্বীকার করে তার কাছে অবৈধ অস্ত্র রয়েছে। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী শুক্রবার ভোরে শিল্প ব্যাংকের পিছনের এলাকা থেকে ৪ রাউন্ড গুলী, একটি রামদা ও একটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়। এ সব অস্ত্র উদ্ধার করে নিয়ে আসার সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে সন্ত্রাসী রহিমের সহযোগীরা গুলী ছুড়তে থাকে। এক পর্যায়ে পুলিশও সন্ত্রাসীদের লক্ষ্য করে পাল্টা গুলী চালায়। এ সময় সন্ত্রাসী আব্দুর রহিম পুলিশকে কিল-ঘুষি মেরে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ গুলী ছোড়ে। এতে তার দুই পায়ে গুলী লাগে। এ ঘটনায় এসআই টিপু সুলতান, এএসআই জয়দেব কুমার ও কনস্টেবল মাহাবুবুর রহমান আহত হয়েছে বলে ওসি দাবি করেন। খুলনা মেট্রেপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মোহাইমিনুর রশিদ বলেন, গুলীবিদ্ধ আব্দুর রহিমকে প্রথমে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া আহত পুলিশ সদস্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। গুলীবিদ্ধ আব্দুর রহিম নগরীর ৫নম্বর মাছ ঘাঁ এলাকার মোশারফের ছেলে। তার বিরুদ্ধে দু’টি ডাকাতি, একটি অস্ত্র ও দু’টি হত্যা প্রচেষ্টা মামলা রয়েছে।

খুলনার আইনজীবী নিখোঁজের ঘটনায় পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল

খুলনার আইনজীবী নিখিল কুমার মোহন্ত নিখোঁজের ঘটনায় আদালতের নির্দেশে তদন্ত শেষে প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার মহানগর হাকিম আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. জালাল আহমেদ এর হাতে এ তদন্ত প্রতিবেদন তুলে দেন। প্রতিবেদনটি ওই আদালতের হাকিম (বিচারক) মো. আমিরুল ইসলামের সামনে নির্ধারিত দিনে উপস্থাপন করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। একই আদালত গত ২৭ মার্চ এ ঘটনার তদন্তে নির্দেশ দেন সদর থানার ওসিকে। থানার এসআই সুব্রত বিশ্বাস এ তদন্তের দায়িত্ব পান।

আদালত সূত্র জানায়, নিখোঁজের প্রায় সাড়ে তিনবছর পর আইনজীবী নিখিল কুমার মোহন্তের স্ত্রী পারুল মোহন্ত গত ৮ মার্চ খুলনার মুখ্য মহানগর হাকিমের আমলী আদালত ‘ক’ অঞ্চলে দণ্ডবিধির ৩৬৪/১০৯ ধারায় চারজনের বিরুদ্ধে নালিশী মামলা দায়ের করেছেন (সিআর ১৮৭/১৭)। মামলায় অভিযুক্তরা হলেন, বাগেরহাঁ জেলার মোল্লাহাঁ উপজেলার চুনখোলা গ্রামের মৃত কৃষ্ণধন মহন্তের পুত্র (নিখোঁজ নিখিলের ভাই) বিবেক মোহন্ত (৭০), তার পুত্র গৌতম মোহন্ত (২৮) ও ক্রিট মোহন্ত (২৫), তার জামাতা বিকাশ বিশ্বাস (৪০)। নালিশী ওই মামলায় সাক্ষী হিসেবে খুলনা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক নেতা বর্তমান বার কাউন্সিল নেতা এডভোকেট পারভেজ আলমখান, খানজাহান আলী রোডস্থ পিটিআই মোড় এলাকার মৃত ছোলেমান শেখের ছেলে মো. সিরাজুল ইসলাম ও আহসান আহমেদ রোডের রমিউদ্দিন শেখের ছেলে ইসমাইল শেখের নাম রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ