ঢাকা, সোমবার 01 May 2017, ১৮ বৈশাখ ১৪২৩, ০৪ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মানুষ সত্য কথা বলতে পারছে না -বি চৌধুরী

গতকাল রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ সিভিল রাইটস সোসাইটির উদ্যোগে দেশের চলমান পরিস্থিতি : উত্তরণে করণীয় শীর্ষক সেমিনারের আয়োজন করা হয় -সংগ্রাম

 

স্টাফ রিপোর্টার : তত্ত্বাবধায়ক সরকার বাদ দেয়ার জন্য শেখ হাসিনাকে দায়ী করে বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি সাবেক রাষ্ট্রপতি এ কিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, নিরপেক্ষ নির্বাচন দিয়ে দেখুন কার কত ভোট। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন শক্তিশালী না হলে ভোট দিয়ে কোন লাভ নেই। ঘরের বাইরে কেউ সত্য কথা বলতে পারছে না বলেও মন্তব্য করেন বি চৌধুরী। 

গতকাল রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা ডা. জাফরুল্লাহ, সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মওলা রনি, বিএনপি নেতা ইসমাঈল হোসেন বেঙ্গল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। 

বি চৌধুরী বলেন, দেশে এখন রাজনীতি বলতে কিছু নেই। মানুষতো ঘরের বাইরে সত্য কথা বলার সাহস পাচ্ছে না। এটাই বড় সমস্যা। 

নির্বাচন কমিশনের দুর্বলতার কারণে দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন হচ্ছে না উল্লেখ করে সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, ভারতের নির্বাচন কমিশন নির্বাচনী আচরণ ভঙ্গের কারণে ইন্দিরাগান্ধীকে জেলে যেতে হয়েছিল। কিন্তু আমাদের দেশে নির্বাচন কমিশন প্রধানমন্ত্রীকে ভয় পায়। 

প্রধানমন্ত্রীর প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, নিজের স্বার্থের জন্য আপনি তত্ত্বাবধায়ক পদ্ধতি তুলে দিলেন। নিরপেক্ষ ভোট দিয়ে দেখেন কার কত ভোট। 

আলোচনায় অংশ নিয়ে বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা ড. জাফরুল্লাহ বলেন, শেখ হাসিনা ভোট না করে সংসদ দখল করেছেন। তিনি দেশে মসজিদ বানানোর ঘোষণা দিয়ে বেহেশতের রাস্তাও দখল করেছেন। আর তাকে মদদ দিচ্ছে নরেন্দ্র মোদি। 

হাওরের ক্ষতির জন্য কিছুটা ভারত, কিছুটা সরকার আর কিছুটা প্রকৃতিকে দায়ী করে এই বুদ্ধিজীবী বলেন, হাওর অঞ্চলের বাধ কিংবা উন্নয়ন যাই কিছু করা হোক না কেন স্থানীয়দের সম্পৃক্ততা দরকার। 

তিনি ভারতের আচরণের দিকে খেয়াল রাখার আহ্বান জানিয়ে বলেন ৭১ সালে পাকিস্তান বাংলাদেশের সঙ্গে যে আচরণ করেছিল ভারত এখন কাশ্মিরের সঙ্গে একই আচরণ করছে। সুতরাং ভারতের আচরণের দিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে। কারণ পাশের বাড়ির আগুন যেকোন সময় আমাদের ঘরে লাগতে পারে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ