ঢাকা, শনিবার 06 May 2017, ২৩ বৈশাখ ১৪২৩, ০৯ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বিএনপির মুখে গণতন্ত্রের বুলি  বছরের সেরা তামাশা -ওবায়দুল কাদের

 

স্টাফ রিপোর্টার: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির মুখে গণতন্ত্রের বুলি বছরের সেরা তামাশা। তিনি বলেন, তারা বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার নামে বহু সেনা অফিসারের রক্ত¯্রােতের উপর দাড়িয়ে ‘কারফিউ গণতন্ত্র’ চালু করেছিল। 

ওবায়দুল কাদের গতকাল শুক্রবার সকালে ঢাকার কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া বিআরটিএতে পেশাজীবী চালকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

ঢাকা জেলা পুলিশের সহযোগিতায় বিআরটিএ ঢাকা জেলা সার্কেল এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করে। কর্মশালায় দেড় শতাধিক পেশাজীবী চালক অংশ নেন। ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার শাহ মিজান শাফিউর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমান।

বহুদলীয় গণতন্ত্রের নামে স্বাধীনতা বিরোধীদের রাজনীতি করার সুযোগ দেয়া হয়েছিল উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, কারফিউ গণতন্ত্র থেকে তারা নির্বাচন বানচালের নামে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি গণতন্ত্রকে হত্যার নীল নকশা করেছিল।

 সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি মহাসচিব বানিয়ে বানিয়ে তোতা পাখির মতো মিথ্যাচার করছেন। তারা (বিএনপি) গণতন্ত্র ও দুর্নীতির কথা বলেন।

বিএনপির মুখে দুর্নীতির অপবাদ, ভূতের মুখে রাম নাম উল্লেখ করে তিনি বলেন, অথচ দুর্নীতির দায়ে তাদের রাজপুত্র (তারেক রহমান) নয় বছর ধরে টেমস নদীর ধারে পালিয়ে আছেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শেখ হাসিনা সরকার জনগণের সরকার। জনবিরোধী কোনো আইন আমরা সংসদে পাস করব না, করতে পারি না।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দুর্নীতিতে তারা (বিএনপি) চ্যাম্পিয়ন। তাদের মুখে দুর্নীতির অপবাদ, মুখে রাম রাম ধ্বনি ছাড়া কিছুই নেই। আওয়ামী লীগ দুর্নীতি করে পালায়নি, পালিয়েছে বিএনপি।’

দুর্নীতির কারণে তাঁরা দেশে ফিরতে পারছেন না। অর্থ পাচারের অভিযোগে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন’, যোগ করেন সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, যারা গণতন্ত্রের কথা বলছে, তারা পেট্রলবোমা মেরে মানুষ পুড়িয়ে গণতন্ত্র চালু করতে চায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ