ঢাকা, রোববার 07 May 2017, ২৪ বৈশাখ ১৪২৩, ১০ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

এপ্রিল মাসে রাজনৈতিক সন্ত্রাস

-মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান
[ তিন ]
১৯ এপ্রিল কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে শাখা ছাত্রলীগ যুগ্ম-সম্পাদক সজিবুল ইসলামের হাতে অস্ত্র প্রশিক্ষণ নেতা মতিয়ার রহমান এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক। মতিয়ার রহমান গত ১৭ জুলাই থেকে শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ পায়। মতিয়ারকে অস্ত্র প্রশিক্ষণ দেয়া সজিবের হাতে অস্ত্র প্রশিক্ষণ নেয়া অপর দুই শিক্ষকের একজন হলেন ইবি গনিত বিভাগের সাবেক শিক্ষক ও সাবেক ছাত্রলীগ সহ-সভাপতি আজিজুল হক মামুন। এ ঘটনায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ছাত্রলীগ নেতা সজিবুল ইসলামকে সাময়িক ভাবে বহিস্কার করে এবং তৎকালীন প্রক্টর ডঃ মাহবুবকে তার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়। ২০ এপ্রিল চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে বহিস্কৃত ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ্্ আল-কাওছার সাকিল জোর করে পরীক্ষা দিতে গেলে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ বাঁধে, ফলে পুলিশের এএসআই মহসীন আলী, কনষ্টেবল রফিকুল ইসলাম, আনোয়ার হোসেন, ইমাম হোসেন ও শরীফুল ইসলামসহ আহত ত্রিশজন। এ সময় ছাত্রলীগ ট্রেনের হোস পাইপ ও ট্রেনের ফিস প্লেট খুলে ফেলে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেয়। ২৩ এপ্রিল খুলনার কয়রা উপজেলার দক্ষিন বেদকাশি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এস.এম আসাদুজ্জামান বুলবুল খুলনা প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে ছাত্রলীগ কয়রা উপজেলা সভাপতি মেহেদী হাসান দিদার তার কাছে বিভিন্ন ভাবে চাঁদাদাবী, ঘের দখল ও হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে। ২৫ এপ্রিল চুয়াডাঙ্গায় প্রাণী সম্পদ অফিসের কাছে ছাত্রলীগের দলীয় কোন্দলে তিন কর্মী রাসেল, ইমরান ও রিগান আহত হয়। ২৭ এপ্রিল চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে পৃথক অভিযানে ২২৬ পিস ইয়াবাসহ হিঙ্গুলী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন রিসাতসহ সাত জনকে জোরারগঞ্জ বাজার ও করেরহাটের ঘোড়ামারা থেকে আটক করে পুলিশ। অন্য আটককৃতরা হলো- মাঈন উদ্দিন টুটুল, জাহেদ, ফারুক, সাজ্জাদ হোসেন ও জুয়েল। ২৮ এপ্রিল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আবাসিক হলের সীট দখল নিয়ে মাদার বক্স হলে আল-ইমরান এবং আকতার হোসেনের ১৩৪ ও ১৩৬নং রুমে তালা ঝুলিয়ে নিজ সংগঠনের কর্মীর সীট দখল করে ছাত্রলীগ। ২৯ নড়াইল ভিক্টোরিয়া কলেজ ক্যাম্পাসে দলীয় কোন্দলে নাসির উদ্দিন, শামীম ও আরমানকে কুপিয়ে জখম করে প্রতিপক্ষ গ্রুপ। ছাত্রলীগ জেলা সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জামান মুকুল ও সহ-সম্পাদক সিদ্ধার্থ সিংহ পিন্টু গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ্বে এ ঘটনা ঘটে।
যুব লীগ ঃ  ২ এপ্রিল ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রকল্প প্রকিউরমেন্ট অফিসার মোহাম্মদ নূরুল্লাহ্কে লাঞ্ছিত করে যুবলীগ নেতা মিলন। সরকারী বিধি বহির্ভূত ভাবে ক্রয় আদেশ পাওয়ার জন্য মিলন তাকে চাপ দেয়, তিনি বিধি বহির্ভূত ভাবে কাজ দিতে অস্বীকার করায় তাকে এ ভাবে লাঞ্ছিত করা হয়। ৩ এপ্রিল বগুড়া পৌর মেয়র এ.কে.এম মাহবুবার রহমান বাজার ইজারা দেয়া নিয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলে যুবলীগ নেতা ও বর্তমান ইজারাদার আব্দুল মতিন সরকার, আব্দুল মান্নান ও ময়নাসহ ১০-১২ জন মেয়রের বাসায় গিয়ে তাকে লাঞ্ছিত করে ও হত্যার হুমকি দেয়। পিরোজপুরের ইন্দুরকানিতে উপজেলা যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক ও মাদক ব্যবসায়ী আল-আমিন, রানা শেখ, সোহেল শেখ, শহিদুল শেখ ও সুমন মন্ডলকে ৪ কেজি গাঁজা ও ১০৫ পিস ইয়াবাসহ আটক করে র‌্যাব-৮। ৯ এপ্রিল বগুড়া পৌর সভার ১৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সদর উপজেলা যুবলীগ সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলা করে দুদক। ১৬ এপ্রিল সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে পাথর ব্যবসা নিয়ে দ্বন্দ্বে যুবলীগ নেতা আব্দুল আলী হত্যা মামলায় আরেক যুবলীগ নেতা শামীম আহমেদকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। ২০১৪ সালের ২৪ অক্টোবর পাথর ব্যবসায়ী ও যুবলীগ নেতা আব্দুল আলী খুন হয়। শামীম ঐ মামলায় আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জর করে তাকে জেল হাজতে পাঠায়। ১৯ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন যুবলীগে সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে দ্বন্দ্বে আল-আমিন ভূঁইয়া ও শফিকুল ইসলাম নামে দু’জন জখম হয়। এই পদ নিয়ে আল-আমিন ভূঁইয়া ও কামাল হোসেনের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। ২১ এপ্রিল রাজশাহীর পুঠিয়ায় বেলপুকুর আইডিয়াল কলেজে উপাধ্যক্ষ নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশ, অনিয়মের অভিযোগে বন্ধ করে দেয় যুবলীগ রাজশাহী মহানগর ৮নং ওয়ার্ড সভাপতি ও তার লোকজন। ২৪ এপ্রিল পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে পাড়েরহাট ইউনিয়নে যুবলীগের দলীয় কোন্দলে ৭নং ওয়ার্ড সভাপতি রাসেল শেখ আহত হয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজে ভর্তি হলে ২৫ এপ্রিল রাসেল মারা যায়। ঘটনায় পিরোজপুর পৌর যুবলীগ নেতা আবু সাঈদকে আটক করে পুলিশ। স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঃ ২১ এপ্রিল ফরিদপুরে নগরকান্দা পৌর সভায় আওয়ামী কৃষক লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত অর্ধশত। আওয়ামী লীগ নেতা সূর্য্য মাতব্বর এবং পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেনের সমর্থকদের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়।
বিএনপি ঃ ৫ এপ্রিল সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও আলীপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ জামিন পেয়ে জেল গেট থেকে বের হওয়ার সময় পুলিশ জেল গেটে পুনরায় তাকে আটক করে। রাজশাহীর বাঘায় বিএনপি নেতা ও বাজুবাঘা ইউপি চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন জান্নাত এবং ৪নং ওয়ার্ড সদস্য আলাল উদ্দিনকে জনৈক ইউপি মহিলা সদস্যাকে ধর্ষণের মামলায় আটক করে পুলিশ। ৮ এপ্রিল সাতক্ষীরার কলারোয়া পুলিশ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক কেড়াগাছি ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফ হোসেনকে পাঁচপাড়া গামের নিজ বাড়ী থেকে আটক করে। ৯ এপ্রিল সাতক্ষীরার কলারোয়ায় উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাকিব মোল্লা ও সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ তামিম আজাদ মেরিনকে গোপীনাথপুর মোড় এলাকা থেকে আটক করে পুলিশ। ২৫ এপ্রিল মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল হাই দুর্নীতির মামলায় আদালতে হাজির হলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠায়। পটুয়াখালীতে বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনের তিন নেতাকে দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের দায়ে বহিস্কার করে সংগঠনটি। বহিস্কৃতরা হলো- জেলা বিএনপির সহ-সাধারন সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন খান, যুবদল সদর উপজেলা আহবায়ক এ্যাডঃ রুহুল আমিন রেজা ও পটুয়াখালী শহর ছাত্রদল আহবায়ক শাহীন বিহারী। গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ২০১৩ সালের ৩০ নভেম্বরের এক দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের মামলায় বিএনপি ও তাদের অঙ্গ সংগঠনের পঁচিশ নেতা-কর্মীর ৫ বছর করে কারাদন্ড দেয় আদালত। আসামীদের প্রত্যেককে এক হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক মাস করে কারাদন্ড। দন্ডপ্রাপ্তরা হলো- গোবিন্দগঞ্জ পৌর যুবদল সভাপতি মঈন উদ্দিন লিপন, থানা ছাত্রদল ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোকাদ্দেম হোসেন সজল, সাধারন সম্পাদক কাজী এহসানুল কবীর রিপন, পৌর ছাত্রদল আহবায়ক আব্দুল মতিন মিয়া, যুগ্ম-আহবায়ক মোন্নাফ চৌধূরী ও স্বপন মিয়া, গোবিন্দগঞ্জ কলেজ ছাত্রদল সভাপতি আব্দুল মজিদ প্রধান, সাধারন সম্পাদক আতিকুর রহমান রতন, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারন সম্পাদক দেবাশীষ কুমার চাকী কাজল, যুবদল নেতা শিবপুর ইউপি মেম্বার হাবিবুর রহমান এবং জিতু ঘোষসহ পাঁচশ জন। ৩০ এপ্রিল ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে পোড়াবাড়িয়া গ্রাম থেকে বিএনপি নেতা খোরশেদ আলম পুলককে আটক করে পুলিশ।
ছাত্র দল ঃ ৪ এপ্রিল ফেনীর ছাগলনাইয়ায় পৌর ছাত্রদল ৫নং ওয়ার্ড সভাপতি মাসুদ রানাসহ বিভিন্ন মামলায় পাঁচ জনকে আটক করে পুলিশ। ৫ এপ্রিল ময়মনসিংহ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে হর্টিকালচার সেন্টারের সামনে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ সংঘর্ষে আহত আট ছাত্রলীগ কর্মী। ছাত্রদলের উৎপাদন মূখী শিক্ষা ব্যবস্থার দাবীতে লিফলেট বিতরণে ছাত্রলীগ বাধা দিলে এই সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে আহতরা হলো- আশিক মাহমুদ, হাসান বিশ্বাস নীরব, রাসেল আহম্মেদ, বিকাশ ঘোষ, কামরুল হাসান সিদ্দিকী, আলমগীর রায়হান জুয়েল, ইমতিয়াজ আবির ও শামীম আকরাম। পরে তাদের দায়ের করা মামলায় আব্দুল হান্নান ও ফরহাদসহ তিনজন আটক হয়। ২০ এপ্রিল কুমিল্লায় নিজ বাড়ী থেকে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সম্পাদক মোফাজ্জেল হোসেন বশিরকে পুলিশ আটক করে। ২৬ এপ্রিল পঞ্চগড়ে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় ছাত্রদল জেলা সিনিয়র সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন তাপস, সহ-সভাপতি হাসিবুল ইসলাম বকুল ও সাংগঠনিক সম্পাদক মহিদুল ইসলাম দিপুকে সংগঠনের শৃংখলা ভঙ্গের দায়ে বহিস্কার করে সংগঠনটি।
যুব দল ঃ ৩ এপ্রিল কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা যুবদল যুগ্ম-আহবায়ক মাসুদ রানাকে মুরাদনগর বাজারের পাশে একটা দোকান থেকে আটক করে সাদা পোষাকের  পুলিশ। ২৯ এপ্রিল খুলনা মহানগরে কেন্দ্র ঘোষিত কমিটি বাতিলের দাবীতে এক সপ্তাহের আল্টিমেটাম দিয়েয়ে প্রতিপক্ষ গ্রুপ। ৩০ এপ্রিল ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে কিতাব আলী মার্কেট থেকে গফরগাঁও পৌর যুবদল কর্মী রাজিব আহমেদকে আটক করে পুলিশ।
জামায়াত ঃ ১ এপ্রিল দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জের হরিপুর বাজার থেকে জেলা জামায়াত আমীর আনোয়ারুল ইসলাম ও তার সফর সঙ্গী রাজু আহমেদকে আটক করে পুলিশ। ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুরে তিন ইউনিয়ন থেকে জামায়াতের চার নেতা-কর্মীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো- স্বরূপপুর ইউনিয়ন আমীর আবুল হাশিম, নেপা ইউনিয়ন আমীর বশির উদ্দিন, বাঁশবাড়িয়া ইউনিয়ন আমীর জুলফিকার আলী ও রাখালভোগা গ্রামের জামায়াত নেতা আবু সুফিয়ান। চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা জামায়াতের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ জাকারিয়াকে নগরীর আসকারদীঘির পাড়ের বাসা থেকে আটক করে পুলিশ। ৩ এপ্রিল লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে পুলিশ উপজেলা পরিষদ ভাইস-চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন লক্ষ্মীপুর জেলা সভাপতি মাওলানা হুমায়ুন কবীর, উপজেলা জামায়াত আমীর মাওলানা নূর উদ্দিন মাহমুদ, জামায়াত নেতা এ্যাডঃ মহসীন কবীর মুরাদ, ইউসুফ, নোমান শরীফ, মিজান, আব্দুল আলী, আবু জাহের, মিজানুর রহমান, আলাউদ্দিন, আমির হোসেন, আব্দুর রহীম, আমজাদ হোসেন, নোমান হোসেন ও বাবুল হোসেনকে একটি সাংগঠনিক সভা চলা কালে চরফলকান এলাকা থেকে আটক করে। সাতক্ষীরা পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে দুই জামায়াত কর্মীসহ বিভিন্ন মামলায় আটক করে সাইত্রিশজনকে। নীলফামারীর ডিমলা থেকে উপজেলা জামায়াত প্রচার সম্পাদক আব্বাসী আলী, সর্দারহাট গ্রামের জামায়াত কর্মী আয়েন উদ্দিন, রামডাঙ্গা গ্রামের আলিনুর রহমান, ধউলু দক্ষিণ তিতপাড়া গ্রামের নূরুল হুদা ও বাবুহাট পশ্চিমপাড়া গ্রামের আব্দুল কাদের বুলুকে আটক করে পুলিশ।
৬ এপ্রিল সাতক্ষীরা থেকে পুলিশ সাত জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীকে আটক করে। ৯ এপ্রিল চাঁপাইনাবগঞ্জ পৌর মেয়র ও জামায়াত নেতা নজরুল ইসলাম আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠায়। ১১ এপ্রিল লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুরে কেরোয়া ইউনিয়নে মধ্য বেরোয়া গ্রাম থেকে ছয় জামায়াত নেতা-কর্মীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো- ইউনিয়ন জামায়াত আমীর দেলোয়ার হোসেন, কর্মী হারুনুর রশীদ, ইব্রাহিম, সহিদউল্যা, আলী আহমেদ ও মফিজুল ইসলাম। ১২ এপ্রিল সাতক্ষীরা পুলিশ ছয় জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীসহ ৪৯ জনকে আটক করে। ২০ এপ্রিল রংপুরের মিঠাপুকুরে ইমদাদপুর ইউনিয়ন জামায়াত আমীর শরিফুল ইসলামকে পুলিশ তার বাড়ী থেকে আটক করে। ২১ এপ্রিল কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও জামায়াত নেতা এ্যাডঃ একরাম হোসেন বাবুকে আটক করে পুলিশ। গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে মীরগঞ্জ গ্রামের জামায়াত নেতা লুৎফর রহমান গোলাপকে আটক করে পুলিশ। ২৬ এপ্রিল ময়মনসিংহ জেলা জামায়াতের সেক্রেটারী আব্দুল করিমকে গাঙ্গিনারপাড় আসাদ মার্কেটে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে আটক করে পুলিশ। ৩০ এপ্রিল নড়াইল সদর থানা পুলিশ মহিলা জামায়াতের একটি সাংগঠনিক সভা থেকে হোসনে আরা বেগমসহ সাইত্রিশ মহিলা নেতা-কর্মীকে আটক করে।
শিবির ঃ ১ এপ্রিল নোয়াখালীর সেনবাগে বিজবাগ গ্রাম থেকে শিবির কর্মী মহিন উদ্দিনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ৪ এপ্রিল রংপুরের একটি আদালত বিস্ফোরক মামলায় বিশ বছরের দন্ডপ্রাপ্ত তিন শিবিরের কর্মী নীলফামারীর ডিমলার খরিবাড়ী এলাকার মেহেদী হাসান তাহমিদ, একই জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলার বড়ভিটা এলাকার রবিউল ইসলাম ও রংপুর জেলার পীরগাছার মেকুড়া এলাকার জামিদুল ইসলাম আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠায়। ১২ এপ্রিল রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিবির আখ্যা দিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ৩য় বর্ষের ছাত্র নূরুজ্জামানকে আটক করে পুলিশে দেয় ছাত্রলীগ। ২৭ এপ্রিল চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে জোড় পুকুরিয়া এলাকার নিজ বাড়ী থেকে সাবেক শিবির নেতা নাঈম উদ্দিন চিশতিকে আটক করে পুলিশ। ২৮ এপ্রিল নোয়াখালীর সেনবাগ কলেজ শিবির সাবেক সভাপতি আবু জাহের ও শিবির নেতা মুস্তাফিজুল করীম বাহার ওরফে মেহেদীকে আটক করে পুলিশ।
জেএমবি ঃ ৭ এপ্রিল নারায়নগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ ও কুমিল্লার গৌরীপুরে অভিযান চালিয়ে আটক জেএমবির সদস্য জামাল ওরফে রাসেল জেহাদী, আবু নাঈম ওরফে নাঈম জিহাদী, নূরুল আফছার, মহসীন, জাবির হাওলাদার, আক্তারুজ্জামান মারুফ, মাওলানা ওমর ফারুক ও আবুল কাশেম মুন্সীকে আটক করে র‌্যাব-১১। এ সময় তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ জিহাদী বই, ককটেল ও বিস্ফোরক দ্রব্য পাওয়া যায় বলে র‌্যাব দাবী করে।
নব্য জেএমবি ঃ ২৩ এপ্রিল ঢাকার নিউ মার্কেট এলাকা থেকে র‌্যাব নব্য জেএমবি নেতা ইকবাল হোসেন ওরফে মনির হোসেন ওরফে শায়খ ইকবালকে আটক করে। ২৬ এপ্রিল ঢাকার উত্তরা থেকে জেএমবির সরোয়ার-তামিম গ্রুপের আইটি বিশেষজ্ঞ বুয়েটের ছাত্র মুশফিকুর রহমান মার্টিন জেনিকে আটক করে র‌্যাব। সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া থেকে জেএমবির সরোয়ার-তামিম গ্রুপের সদস্য ময়নুল হককে আটক করে র‌্যাব। ২৭ এপ্রিল চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে ত্রিমোহনী এলাকায় পুলিশের অপারেশন “ঈগল হান্টার”-এ জেএমবি সদস্য আবুসহ চার জন নিহত হয়। ঢাকার সাভারে রাজফুলবাড়িয়া বাসষ্ট্যান্ডে একটি বাড়ী থেকে নব্য জেএমবির সদস্য তামিম দ্বারী, কামরুল হাসান ও মোস্তফা মজুমদারকে আটক করে র‌্যাব।
পূর্ববাংলা সর্বহারা পার্টি ঃ ২৫ এপ্রিল রাজবাড়ীর পাংশায় নাদুরিয়া ঘাট এলাকা থেকে ১টি ওয়ান শুটারগান ও ২ রাউন্ড গুলিসহ পূর্ববাংলা সর্বহারা পাটির সদস্য রান্নু ও দুলালকে আটক করে পুলিশ।
সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট : ২৭ এপ্রিল ময়মনসিংহ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের অফিস দখল নিয়ে দু’গ্রুপের দু’দিন ধরে সংঘর্ষে আটজন আহত হয়। [সমাপ্ত]

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ