ঢাকা, রোববার 07 May 2017, ২৪ বৈশাখ ১৪২৩, ১০ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

গল্লামারী-বটিয়াঘাটা কাসেম সড়কে ময়ূর নদীর কাঠের ব্রিজটি ঝুঁকিপূর্ণ

খুলনা অফিস: দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার সবুজবাগ ৪নং কাসেম সড়কের সাথে সংযুক্ত ময়ূর নদীর উপর কাঠের ব্রিজটি চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।
ফলে ওই এলাকার মানুষ অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করায় যে কোন সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
স্থানীয়রা জানান, গল্লামারী ময়ুর নদীর শাখা খালের উপর অবস্থিত প্রায় ২/৩ শত ফুট লম্বা কাঠের ব্রিজটি বেশ কয়েকটি জায়গায় ভেঙে নিচে ঝুলে গেছে আবার কিছু কিছু জায়গায় কাঠ ফাঁকা হয়ে গেছে। কিন্ত সবুজবাগ পল্লীর মানুষের জীবনের ভাগ্য বদলাতে ও সবুজ বাগ জামালুল কুরআন মাদরাসার ৫/৬ শত ছাত্র ছাত্রী ও শিক্ষকবৃন্দ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ওই কাঠের ব্রিজটির উপর দিয়ে যাতায়াত করছে। যে কোন সময় বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
এলাকাবাসীরা জানান, এই ব্রিজটি ১২/১৪ বছর আগে কাঠ দিয়ে তৈরি করা হয়। কিন্ত প্রতি বছর এলাকার যুব সমাজের সহযোগীতায় কোন রকম জোড়াতালি দিয়ে এখনও পর্যন্ত চলছে।
এখান থেকে প্রতিদিন কয়েক হাজার লোক যাতায়াত করে থাকে। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি ছোটখাট দুর্ঘটনা ঘটেছে। অনেক রাজনৈতিক নেতা বা জনপ্রতিনিধিরা ব্রিজটি সংস্কারের প্রতিশ্রুতি দিলেও ব্রিজটি সংস্কার তো দুরের কথা কোন খোঁজ-খবর পর্যন্ত নেয়নি। এলাকার ছোট মিয়া, মাসুদ রানা, মিলন সেখ, আবু সাঈদ, লিটন শেখ, আরাফাত, জাহাঙ্গীর, আবারুল, আলিমসহ এলাকাবাসীদের সাথে নিয়ে এবং তৌহিদ, এমএ চৌধুরী, ময়না সাহেবের সহযোগিতায় কয়েকবার ব্রিজটি সংস্কার করেছে।
এলাকার একাধীক ব্যক্তি জানান, মাসুদের নেতৃত্বে প্রতি বছর দু’-এক বার ব্রিজটি সংস্কার করা হয়। এটি সংস্কারের জন্য স্থানীয় মেম্বর, চেয়ারম্যান ও উপজেলা চেয়ারম্যানকে অবহিত করলেও কোন কাজ হয়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ