ঢাকা, রোববার 07 May 2017, ২৪ বৈশাখ ১৪২৩, ১০ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

দুই বাংলাদেশীকে মারধর ক্ষমা চাইলো বিএসএফ

 

সংগ্রাম ডেস্ক: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতা সীমান্তে দুই বাংলাদেশীকে মারধর করার ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।শনিবার (৬ মে) সকালে বিজিবি ও বিএসএফ’র কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে একই সীমান্তে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পরে বৈঠকে এ ঘটনায় বিজিবি’র কাছে ক্ষমা চেয়ে দুঃখ প্রকাশ করে বিএসএফ।

হাতীবান্ধার বড়খাতা ইউনিয়নের দোলাপাড়া এলাকার পেয়ার উদ্দিনের ছেলে শাহিদুল ইসলাম জানান, শুক্রবার (৫ মে) দুপুরে দোলাপাড়া জিগারঘাট সীমান্তের ৮৮৮ নম্বর মেইন পিলারের কাছে তিনি ও তার স্ত্রী আমেনা বেগম বাংলাদেশ ভূখ-ে ঘাস কাটছিলেন। হঠাৎ করে ভারতীয় কুচবিহার জেলার শীতলখুচি থানার বড় মধুসূধন ক্যাম্পের ৩৪ বিএসএফ’র একটি টহল দল অতর্কিতভাবে তাদের ওপর আক্রমণ করে। আশপাশের অন্যরা পালিয়ে গেলেও বিএসএফ তাকে ও তার স্ত্রীকে আটক করে মারধর করে। পরে তাদের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে এলে বিএসএফ সদস্যরা চলে যায়।

লালমনিরহাট-১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে কর্নেল গোলাম মোর্শেদ বলেন, আজ সকালে বিজিবি-বিএসএফ’র কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুই বাংলাদেশিকে নির্যাতনের ঘটনায় ভারতীয় বিএসএফ’র পক্ষ থেকে ক্ষমা চেয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছে। তবে বিএসএফ’র অভিযোগ ছিল, শাহিদুল ও আমেনা বেগম চোরাকারবারী ব্যবসায় জড়িত।

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ