ঢাকা, সোমবার 08 May 2017, ২৫ বৈশাখ ১৪২৩, ১১ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

লালমাটিয়া অধিনায়ক ফয়সালের ক্ষমা প্রার্থনা

স্পোর্টস রিপোর্টার : দ্বিতীয় বিভাগ ক্রিকেটে আম্পায়ারদের ‘পক্ষপাতমূলক’ আচরণের প্রতিবাদে গত ১১ এপ্রিল ঢাকা দ্বিতীয় বিভাগ ক্রিকেট লিগে লালমাটিয়া ক্লাবের বোলার মোহাম্মদ সুজন মাহমুদ এক্সিওম ক্রিকেটার্সের বিপক্ষে ৪ বলে ৯২ রান দিয়েছিলেন। ঘটনাটি আলোড়ন ফেলে দিয়েছিল ক্রিকেট বিশ্বে। সুজনকে আজীবন নিষিদ্ধ করার পাশাপাশি লালমাটিয়া ক্লাব ও দলটির অধিনায়ক ফয়সাল আহমেদ বনিকে ১০ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। গতকাল বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরীর কাছে পুরো ঘটনার জন্য ক্ষমা চেয়ে চিঠি দিয়েছেন ফয়সাল। এরপর তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘ বোর্ড আমাকে নিষিদ্ধ করেছে। নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেতেই বোর্ডে এসেছি, ক্ষমা চেয়ে চিঠি জমা দিয়েছি। এখন দেখি বোর্ড কী করে।’ এ ব্যাপারে প্রধান নির্বাহীর বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেছেন, ‘উনি বলেছেন, তুমি চিঠিটা জমা দিয়ে যাও। আমরা দেখছি কী করা যায়।’ নিজেকে নির্দোষ দাবি করে ফয়সালের মন্তব্য, ‘আমি বোর্ডকে বলছি, সেদিন আমার কিছুই করার ছিল না। ওভার শেষ না হলে তো আমি বোলার পরিবর্তন করতে পারি না।’ শাস্তি থেকে বাঁচতেই সম্ভবত এখন সুর কিছুটা হলেও নরম লালমাটিয়া অধিনায়কের।  বোলার সুজন মাহমুদ জানিয়েছেন, আম্পায়ারদের ‘পক্ষপাতমূলক’ আচরণের জবাব দিতেই এমন অভিনব প্রতিবাদ করেছেন তিনি। অথচ ফয়সাল বলছেন অন্য কথা, ‘আম্পায়ারিংয়ের সময় দুই-একটা সিদ্ধান্ত ভুল হতেই পারে।  সেদিন আম্পায়ারিং খারাপ হয় নি, মোটামুটি ভালোই হয়েছিল। কিন্তু আমাদের  বোলিংয়ের সময় কী হচ্ছিল, কেউ বুঝতে পারছিলাম না। আমি নিজে অধিনায়ক হয়েও বুঝতে পারি নি।  খেলার পর বুঝতে পেরেছি, কী হয়েছে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ