ঢাকা, মঙ্গলবার 09 May 2017, ২৬ বৈশাখ ১৪২৩, ১২ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

গান্ধীবাদের ভারতের বর্ণবাদী প্রকল্প অনুমোদন

৮ মে, দ্য ওয়্যার : ভারতকে বলা হয় গান্ধীবাদ আর বুদ্ধের ভূমি। নিজেদের সম্পর্কে ভারতীয়রা বলে, তাদের ভূমিতে নেই কোন ভেদাভেদ, নেই সাদা কালোর ব্যবধান। তবে সম্প্রতি দেশটিতে ‘ভারতি আরোগ্য’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান ঘোষণা দিয়েছে যে, বাবা-মা কালো হলেও তারা ওই দম্পতির ফর্সা সন্তান জন্ম দিতে সক্ষম। এই ব্যপারটিকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের আদালাত রেসিজম ও হাতুরিবিদ্যা বললেও প্রকল্পটি রাজ্যে পরীক্ষামূলক পরিচালনার অনুমতি দিয়েছে। জানা গেছে, ভারতি আরোগ্য আসলে ভারতের কট্টরপন্থী আরএসএস বা শিবসেনা-এর একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠানও। ভারতি আরোগ্যের প্রকল্পটিতে মূলত কালো বাবা-মায়েদের নির্দেশনা দেওয়া হয় কিভাবে তারা ফর্সা শিশু পেতে পারেন এবং সে অনুযায়ী কিছু কার্যাবলী পালন করতেও নির্দেশ দেওয়া হয়। প্রকল্পটিকে ‘গর্ভ শঙ্কর’ নামেও অভিহিত করা হয়। এই প্রকল্পের অন্যতম গবেষক ড. কৃষ্ণ নারভিন সম্প্রতি কলকাতায় প্রচারণা চালান। তিনি গুজরাট আয়ুর্বেদ বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকচারার। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের এবং এই প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত ড. হিতেশ জানি বলেন, ‘গর্ভ শঙ্কর প্রকল্প প্রতিভাবান শিশুদের জন্ম দিতে সক্ষম।’
কৃষ্ণ নারভিনের প্রস্তাবনা অনুযায়ী, পশিচমবঙ্গের শিশু অধিকার রক্ষা কমিশন রাজ্যের আদালতে এই প্রকল্প পরিচালনার দায়িত্ব পালন করতে আবেদন জানায়।
প্রকল্প অনুযায়ী, এই সেবা নেওয়া প্রত্যেক দম্পতিকে ৫০০ রুপি খরচ করতে হবে। তবে, পশ্চিমবঙ্গ আদালত প্রকল্পের শুরুতে দম্পতিদের বিনামূল্যে সেবা দিতে নির্দেশ দিয়েছে এবং এই সেবা কেবল একটি মাত্র নির্দেশনায় সীমাবদ্ধ রাখতে বলেছে। ইনডিয়ান এক্সপ্রেস সূত্রে জানা গেছে, সংস্থাকাটি ইতোমধ্যেই অন্তত ৪৫০টি শিশুর সফল জন্ম দিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ