ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 May 2017, ২৮ বৈশাখ ১৪২৩, ১৪ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বগুড়ার শেরপুরের শেরুয়া বটতলা-ফুলতলা রাস্তা চলাচলের অযোগ্য

শেরপুর (বগুড়া) সংবাদদাতা : বগুড়ার শেরপুরের শাহবন্দেগী ইউনিয়নের শেরুয়া বটতলা-ফুলতলা আঞ্চলিক সড়কের ১ কিলোমিটার রাস্তা চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। এই রাস্তায় দিয়ে ৩টি কেজি স্কুল ও একটি দাখিল মাদরাসার ছাত্র-ছাত্রী সহ বিভিন্ন স্কুল কলেজের অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী ও হাজার হাজার সাধারণ মানুষ চলাচল করায় তারা চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। এলাকাবাসী এই রাস্তাটি সংস্কারের জন্য চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান ও এমপি সহ বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করেও কোন সাড়া না পেয়ে তারা চাঁদা তুলে নিজ উদ্যোগে ইট বালু দিয়ে সংস্কার কাজ শুরু করেছে। 

এলাকাবাসীর থেকে চাঁদা উঠিয়ে গত মঙ্গলবার থেকে স্থানীয় লোকজেনর সহায়তায় রাস্তা সংস্কারের কাজ শুরু করা হয়। এ সময় আব্দুল হামিদ, মাহবুবুর রহমান, মিজানুর রহমান, নাজমুল হোসেন উপপস্থিত থেকে কাজের তদারকি করেন। তারা জানান, এলাকার পানি নিষ্কাশনের সু-ব্যবস্থা না থাকায় একটু বৃষ্টিতেই রাস্তায় ব্যাপক পানিবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। পানি নিষ্কাশনের সু-ব্যবস্থা ও কর্তৃপক্ষের অবহেলা আর উদাসিনতার কারণে শত শত ছাত্র/ছাত্রী ও লক্ষাধিক মানুষ পানিবদ্ধতার অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। পানিবদ্ধতা ও রাস্তার মধ্যে অসংখ্য গর্তের কারণে সম্প্রতি একটি ধান বোঝায় ট্রাক ও কয়েকটি ভ্যান উল্টে যায় । 

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, শাহবন্দেগী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড শেরুয়া বটতলা-ফুলতলা চেয়ারম্যান বাড়ি রোডে পানি নিষ্কাশনের সুব্যবস্থা ও রাস্তা সংস্কার না করায়, পানিবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। ওই রাস্তায় রয়েছে দি পারফেক্ট আইডিয়াল পাবলিক স্কুল, প্রতিভা পাবলিক স্কুল, শাহবেন্দেগী মডেল কেজি স্কুলের ও ফুলতলা দাখিল মাদরাসার ছাত্র-ছাত্রীসহ ১৫/২০ টি গ্রামের লোকজন চলাচল করে। সামন্য বৃষ্টিতেই পানিবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে থাকে দিনের পর দিন। ভুক্তভোগী প্রতিভা পাবলিক স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাইদুল ইসলাম ও দি পারফেক্ট আইডিয়াল পাবলিক স্কুলের বাংলা শিক্ষক মো. গোলাম মোস্তফা খান হেলাল জানান, পানি নিষ্কাশনের সু-ব্যবস্থা না থাকায় ছাত্র/ছাত্রী স্কুলে আসতে বেগ পেতে হচ্ছে, অনেকে আবার গর্তে পরে, পা পিছলে পরে গিয়ে স্কুলে আসতে পারেনা বাসায় ফিরে যায়। এ ব্যাপারে ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ সাইদার রহমান শাকিব বলেন, বেশ কয়েক বছর হল রাস্তাটি সংস্কার করা হয়না। রাস্তাটির বেহাল অবস্থার কারণে আমাদের যাতায়াত কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন নওদাপাড়া, ফুলতলা, কানাইকান্দর, চকদোউলা, পাঁচআনা, ঘোলাগাড়ী কালিবাড়ী সহ ১৫-২০টি গ্রামের ও কয়েকটি স্কুলের একমাত্র রাস্তা।

শাহ-বন্দেগী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য আবুল কালাম আজাদ রাঙ্গা জানান, আমরা রাস্তাটি সংস্কারের জন্য বিভিন্ন দপ্তরে চেষ্টা চালিয়ে এখনো কোন ফল পাইনি। তাই এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে আপাতত চলাচলের জন্য কোন রকমে সংস্কার কাজ চালানো হচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিরাজুল ইসলাম জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ