ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 May 2017, ২৮ বৈশাখ ১৪২৩, ১৪ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ড. আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর স্মরণে দোয়া মাহফিল ও স্মারক  উন্মোচন

বাংলাদেশ জাতীয় মুফাস্সির পরিষদের উদ্যোগে গতকাল বুধবার সকালে রাজধানীর একটি মিলনায়তনে ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় কুষ্টিয়ার হাদিস বিভাগের প্রফেসর ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর স্মরণে এক দোয়া মাহফিল এবং তার জীবন ও কর্ম শীর্ষক প্রেরণার বাতিঘর স্মারক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মোড়ক উন্মোচনি অনুষ্ঠানে সংগঠনের সভাপতি মুহাদ্দিস আমিরুল ইসলাম বিলালির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় কুষ্টিয়ার আল ফিকহ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া মজুমদার। অনুষ্ঠানের প্রধান আলোচক ছিলেন তা’মীরুল মিল্লাত কামিল মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা ড. খলিলুর রহমান মাদানী, বিশেষ আলোচক ছিলেন টেকেরহাটের পীর সাহেব আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বক্তা মাওলানা কামরুল ইসলাম সাঈদ আনসারী, উত্তর বাড্ডা ইসলামিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আনোয়ার হোসেন মোল্লা, সাতারকুল নূর মুহাম্মাদ ইসলামিয়া আলিম মাদরাসা অধ্যক্ষ মাওলানা মোশাররফ হুসাইন ও ড. আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর (র.)-এর জামাতা মিরপুর শহীদ স্মৃতি কলেজের অধ্যাপক মাওলানা খোন্দকার মুহাম্মাদ হাবীবুল্লাহ, মাসিক মদিনার পত্রিকার সাবেক সম্পাদক মাওলানা মহিউদ্দীন খানের জামাতা মাওলানা মাহমুদুল হাসান প্রমুখ।  সভায় বক্তারা বলেন, খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর ছিলেন ন্যায়ের প্রতীক, ঐক্যের প্রতীক, প্রেরণার বাতিঘর। তিনি গতবছর ১১ই মে রহস্যজনক সড়ক দুর্ঘটনায় ইন্তিকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। তার মৃত্যুতে জাতি জ্ঞান সাধনায় এক বিশাল ক্ষতি হয়ে গেল। যা পূরণ হওয়ার নয়। তিনি ছিলেন ন্যায়, সততা ও রাসূলের সুন্নাহতে উদ্ভাসিত প্রতিচ্ছবি। দোয়া মাহফিলে অর্ধশতাধিক দেশ বরেণ্য লেখকদের লেখা সম্বলিত জীবন ও কর্মশীর্ষক বই প্রেরণার বাতিঘরের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। আলোচনা করতে গিয়ে মরহুমের জামাতা ডা. খোন্দকার হাবিবুল্লাহ বলেন, আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর আমার শুধু শ্বশুরই ছিলেন না বরং তিনি আমার প্রিয় শিক্ষক ছিলেন। তিনি ছিলেন জ্ঞানের আধার। সর্বদা হাসিমাখা মুখে থাকতেন তিনি। আমার জীবনে তাকে মুখগোমরা করতে দেখেনি। সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ আজহারির সম্পাদনায় যে স্মারক গ্রন্থ বেরিয়েছে তা এ দেশে বিরল। প্রায় অর্ধশতাধিক দেশ বরেণ্য স্কলারদের লেখা ছাপা হয়েছে। এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।  মাহফিলে সংগঠনের সহ-সভাপতি মাওলানা হাফেজ কাজী মারুফ বিল্লাহ পরিচালনায় বিভিন্ন জেলা থেকে আগত ওলামায়ে কেরামদের মধ্যে আলোচনা করেন রাজশাহী বিভাগের অধ্যক্ষ এইচ.এম শহীদুল ইসলাম, রংপুরের মাওলানা অধ্যাপক নুরুল আমীন, বরিশালের শাইখ জামাল উদ্দীন, নীলফামারির অধ্যাপক মাওলানা মুজিবুর রহমান, গাইবান্ধার মাওলানা আইয়ুব আলী শেখ, কুমিল্লার অধ্যক্ষ আ.ন.ম মাঈন উদ্দীন সিরাজী, ঢাকার মুহাদ্দিস মাহমুদুল হাসান, কুষ্টিয়ার নাসির ইকবাল বিন শাফী, সিলেটের আব্দুস সালাম আল মাদানী, চট্টগ্রামের মাওলানা ফারুক সিদ্দিকী, আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন মুফাস্সিরে কুরআন মাওলানা আব্দুল্লাহ আল-আমীন, মুফতি আমীর হামজা, মাওলানা আবুল কালাম বাশার প্রমুখ।  মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও মাহফিল পরিচালনা করেন মাওলানা কামরুল ইসলাম সাঈদ আনসারী। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ