ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 May 2017, ২৮ বৈশাখ ১৪২৩, ১৪ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রায়পুরে আ’লীগের নেতার হাতে মুক্তিযোদ্ধা লাঞ্ছিত 

রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা ঃ  লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের চরকাসিয়া গ্রামে সয়াবিন লুটে বাধা দেওয়ায় এক বৃদ্ধ মুক্তিযোদ্ধাকে প্রকাশ্যে জুতা পেটা করে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা ছাদু মিয়া বুধবার (১০ মে) দুপুরে রায়পুর থানায় দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের আ’লীগের সভাপতি মোস্তাফা  বেপারীর একটি অভিযোগ দায়ের করেন। মুক্তিযোদ্ধা ছাদু মিয়া উপজেলার দেবিপুর গ্রামের মৃত দুলা মিয়ার পুত্র।   বীর মুক্তিযোদ্ধা বৃদ্ধ ছাদু মিয়া বুধবার (১০ মে) কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন,  চরকাচিয়া গ্রামের সরকারি খাস ভূমির ৮১নং প্লটের ১ একর জমিতে সয়াবিন চাষ করেছিলাম। শুক্রবার সকালে  মোস্তফা বেপারী কিছু  বহিরাগত লোকাজন নিয়ে আমার জমির সয়াবিন জোর পূর্বক লুট করে নিয়ে যাওয়ার সময় বাধা দেই। এসময় তারা আমাকে প্রকাশ্যে জুতা পেটাসহ বেদম মারধর করে এবং প্রায় সকল  সয়াবিন লুট করে নিয়ে যায় তারা। আমি প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করি।  অভিযুক্ত দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের আ’লীগের সভাপতি ও চরকাসিয়া গ্রামের আশ্রায়ন প্রকল্পের সভাপতি  মোস্তাফা বেপারী মুক্তিযোদ্ধাকে জুতা পেটার কথা স্বীকার করে বলেন, আমি ছাদু মিয়ার কাছে ৫শ  টাকা পাওনা ছিলাম। আমার টাকা না দিয়ে ক্ষেত থেকে সয়াবিন তুলে নিয়ে যাওয়ার সময় পাওনা টাকার দেওয়ার কথা বলি। এসময় তার সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উনি আমাকে ধাক্কা দেয়। তারপরও আমি তাকে জুতা দিয়ে মারধর করি।  রায়পুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নিজাম উদ্দিন পাঠান বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ছাদু মিয়াকে প্রকাশ্যে জুতা মারার কথা আমাকে জানিয়েছে। যাদের কারণে দেশে আজ স্বাধীন তাদেরকে প্রকাশে লাঞ্চিত  করায় আমরা মর্মাহত। আমি এ ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির দাবি জানাই। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ