ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 May 2017, ২৮ বৈশাখ ১৪২৩, ১৪ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

কেরানীগঞ্জে ভূমিদস্যুতা ও হত্যার হুমকি দেয়ার প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) সংবাদদাতা : ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে গতকাল বুধবার সকালে ইকুরিয়া বেপারীপাড়া নিজ বাসভবনে ভুমিদখলের চেষ্টা ও হত্যার হুমকি দেয়ার প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন করেন ভুক্তভোগি হাজি আশিকুর রহমান। তিনি জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডাইরি ও অভিযোগ দায়ের করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, বেয়ারা এলাকার বাসিন্দা মো. চাঁন মিয়ার কাছ থেকে ৩৬ শতাংশ জমি ক্রয় করি। ইকুরিয়া খালপাড় এলাকার বাসিন্দা সোহরাব মিয়ার ছেলে বিএনপি নেতা ভূমিদস্যু শাকিল ওরফে জালা শাকিল ওরফে ফেন্সি শাকিল উক্ত সম্পদ দখল করতে জাল দলিলের মাধ্যমে দখলের চেষ্টা করে। জমি যাতে দখল করতে না পারে এ জন্য আদালত চিরস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা প্রদান করেন। আদালতের রায় অমান্য করে ভূমিদস্যু শাকিল গত ২৮ এপ্রিল আমার ক্রয়কৃত ৩৬ শতাংশ জমি দখলের জন্য বেয়ারা এলাকায় যায়। এসময় শাকিলের নেতৃত্বে ৩০-৩৫জন অস্ত্রধারী ক্যাডার বাহিনী আমার জমির উপর স্থাপনা ও চারদিকের প্রাচির ব্যাপক ভাংচুর করে। এসময় স্থানীয় লোকজন ভূমিদস্যুদের ধাওয়া করলে পালিয়ে যায়। ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় অভিযোগ ও একটি সাধারণ জিডি করা হয়েছে। শাকিল বাহিনী আমাকে এবং আমার পরিবারকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। আমার পরিবারটি শাকিল বাহিনীর কাছে জিম্মী হয়ে পড়েছে। আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এছাড়াও শাকিলের বিরুদ্ধে রয়েছে বিভিন্ন এলাকায় জমিদখলের অভিযোগ। ভূমিদস্যু শাকিল চেক জালিয়াতি মামলায় জেল খেটে বের হয়। জাল দলিল সৃজন করে বেয়ারা এলাকার লোকমান নামে এক অসহায় এক ব্যক্তির জমি দখলের চেষ্টা করলে আদালতে মামলা মামলা হয়। ওই মামলায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা তদন্ত করে জালজালিয়াতি প্রমাণ পেয়ে শাকিলের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। সে জেল থেকে বেড় হয়ে আমার ক্রয়কৃত জমি দখল করার চেষ্টা করে।  সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, শুভাঢ্যা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, আওলাদ হোসেন শুক্কুর, ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী রিপন, মো. চাঁন মিয়াসহ প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ